আমার দেশ সম্পাদক মাহমুদুর রহমানের পাসপোর্ট ফেতর দিতে সুপ্রিমকোর্টের নির্দেশ

সময় বাংলা, ঢাকা: দৈনিক আমার দেশ পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মাহমুদুর রহমানের পাসপোর্ট ফেরত দিতে নির্দেশ দিয়েছেন সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগ।আজ সোমবার প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার(এসকে) সিনহার নেতৃত্বে চার সদস্যের আপিল বিভাগের বেঞ্চ মাহমুদুর রহমানের করা এ সংক্রান্ত রায়ের পুনর্বিবেচনা(রিভিউ) এক আবেদন নিষ্পত্তি করে এই নির্দেশ দেন।

আদালতে মাহমুদুর রহমানের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন আইনজীবী এ জে মোহাম্মদ আলী ও তানভীর আহমেদ আল আমীন।অপরদিকে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।

মাহমুদুর রহমানের আইনজীবী তানভীর আলআমিন জানান, পাসপোর্ট জমা রাখার শর্তে তাঁকে জামিন দেওয়া হয়েছিল। আপিল বিভাগের ওই আদেশের পুনর্বিবেচনা চেয়ে মাহমুদুর রহমান আবেদন করেন। পরে তানভীর আহমেদ আল আমীন বলেন, এই আদেশের অনুলিপি পাওয়ার ২৪ ঘণ্টার মধ্যে বিচারিক আদালতে মাহমুদুর রহমানকে তাঁর পাসপোর্ট ফেরত দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, চিকিৎসার জন্য দেশের বাইরে যাওয়া দরকার উল্লেখ করে মাহমুদুর রহমান পাসপোর্ট ফেরত চেয়ে পুনর্বিবেচনার আবেদন করেন। আপিল বিভাগ তাঁর স্বাস্থ্যগত বিষয় দেখার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজকে বোর্ড গঠন করতে বলেন। মাহমুদুর রহমানের নিউরো সার্জারির প্রয়োজন কি না, তা ‘অ্যাডভান্স সেন্টারে’ নিরূপণ হতে পারে বলে বোর্ডের প্রতিবেদনে জানানো হয়।

এই প্রতিবেদন বিবেচনায় নিয়ে আদালত এই আদেশ দেন। ফলে চিকিৎসার জন্য মাহমুদুর রহমান বিদেশ যেতে পারেন।

এ বিষয়ে মাহমুদুরের আইনজীবী তানভীর আহমেদ আল আমীন বলেন, দুই মাস আগে জামিন প্রশ্নে রুল হয়েছিল। আদালত রুল অ্যাবসলিউট (যথাযথ) করে জামিন দিয়েছেন। আমার জানামতে, এখন সবগুলো মামলায় তিনি জামিনে আছেন। ফলে তাঁর মুক্তিতে বাধা নেই।

২০১৩ সালের ১১ এপ্রিল রাষ্ট্রদ্রোহের মামলায় গ্রেপ্তার হন মাহমুদুর রহমান। যুক্তরাষ্ট্রে জয়কে অপহরণ করে হত্যার ষড়যন্ত্রের অভিযোগে পুলিশ ২০১৪ সালের আগস্টে পল্টন থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করে, যা পরে মামলায় রূপান্তরিত হয়। পরে তাঁকে এ মামলায় গ্রেপ্তার দেখায় পল্টন থানার পুলিশ। ৭ সেপ্টেম্বর তিনি জামিন পান।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন