আ’লীগ না আসলে অন্যান্যদের নিয়েই জাতীয় ঐক্যের কাজ চালিয়ে যাবে বিএনপি

8450সময় বাংলা, ঢাকা:মঙ্গলবার দুপুরে নয়াপল্টনে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি’র কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেন,  বিএনপি জাতীয় ঐক্য সৃষ্টিতে সকল গণতন্ত্রকামী ও দেশপ্রেমিক রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে যোগাযোগ অব্যাহত রেখেছে। সেক্ষেত্রে আওয়ামী লীগ না আসলে অন্যান্যদের নিয়ে জাতীয় ঐক্য সৃষ্টির কাজ চালিয়ে যাবে বিএনপি। তবে বিএনপি আশা করে জাতীয় ঐক্য সৃষ্টিতে পাশে থাকবে আওয়ামী লীগ।

তিনি বলেন, উগ্রবাদ ও সন্ত্রাস এমন একটা বিষয়, এটা প্রশাসন ও পুলিশ দিয়ে দমন করা যাবে না। দমন করতে গণপ্রতিরোধ গড়ে তোলতে হবে। আর সেই গণপ্রতিরোধ গড়ে তুলতে জাতীয় ঐক্যের বিকল্প নেই।

জঙ্গিবাদের সঙ্গে বিএনপির সখ্যতা রয়েছে বলে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের সমালোচনা করে নজরুল ইসলাম বলেন, বিএনপি বরাবরেই বলে আসছে জঙ্গিদের গ্রেফতার করে জঙ্গিবাদের উৎস বের করা হউক। শুধু বিএনপি নয় সমগ্র দেশবাসী দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করে জঙ্গি নির্মুলে সরকারের আন্তরিকতা নেই, যদি থাকতো তাহলে জঙ্গিদের হত্যা না করে গ্রেফতারের মাধ্যমে উগ্রবাদের নাটের গুরুদের হদিস বের করতে সচেষ্ট হতেন।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, সরকার ও আওয়ামী নেতাদের অতি আগ্রহের কারণেই জঙ্গিবাদ-উগ্রবাদ আরো শক্তিশালী ও বেপোরোয়া হতে পেরেছে। বিএনপি নয় বরং ক্ষমতাসীনরাই কৌশলে উগ্রবাদীদের নির্বিঘ্নে তাদের অপতৎপরতা চালিয়ে যাওয়ার সুযোগ দিচ্ছে।

স্থায়ী কমিটির এই নেতা বলেন, হত্যার পর শেখ মুজিবুর রহমানের চরিত্র হনণ করতে চেয়েছেন জিয়া’ এই মর্মে প্রধামন্ত্রী যে বক্তব্য দিয়েছেন তার নিন্দা জানানোর ভাষা বিএনপির জানা নেই।শহীদ জিয়া শেখ মুজিবের চরিত্র হনণ করেছেন এমন অভিযোগের কোনো ভিত্তি নেই।বরং শেখ হাসিনা এবং আওয়ামী নেতারা ক্রমাগত মিথ্যা, বানোয়াট অভিযোগ করে শহীদ জিয়ার চরিত্র হনণের ব্যর্থ চেষ্টা করে যাচ্ছেন।

সরকারকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, নিষ্ঠুর ও বর্বর উগ্রবাদী জঙ্গি গোষ্ঠীকে নির্মূল এবং তাদের বিষদাত ভেঙ্গে দিতে হলে দলমত নির্বিশেষে ঐক্যবদ্ধ পদক্ষেপ গ্রহণ করা জরুরী। আর তা না করে সরকার যদি এই মানবতাবিরোধী উগ্রবাদীদের নিয়ে রাজনৈতিক ফায়দা হাসিলের খেলা খেলতে থাকেন তাহলে জাতি হিসেবে আমাদের অস্তিত্ব হুমকির মুখে পড়বে।

বানভাসী মানুষের দূর্দশা লাঘবে সরকারের পক্ষ থেকে তেমন কোনো কার্যাকর পদক্ষেপ  দৃশ্যমান নয় মন্তব্য করে নজরুল ইসলাম  আকস্মিক এই বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ও নিঃস্ব মানুষের পাশে দাড়ানোর জন্য সকলের প্রতি আহ্বান জানান।

এসময় দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর অবস্থান জানতে চাইলে তিনি বলেন, রিজভী অসুস্থ, হামলা ও অসংখ্য মামলা নিয়ে গ্রেফতার এড়িয়ে চলছে।এখন কোথায় আছে আমি জানি না।

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আহমেদ আযম খান, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ, শহীদুল ইসলাম বাবুল, মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদিকা শিরিন সুলতানা, সহ দফতর সম্পাদক আসাদুল করিম শাহীন প্রমুখ উপস্থি ছিলেন।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন