কাতারের নাগরিকদের বাধ্যতামূলক সামরিক প্রশিক্ষণের নির্দেশ

ফাইল ছবি

সময় বাংলা, ডেস্ক:

কাতারে প্রত্যেক পুরুষ নাগরিকের জন্য সামরিক প্রশিক্ষণ বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। দেশটির আমির শেইখ তামিম বিন হামাদ আলে সানি এক ডিক্রি জারি করে বলেছেন, ১৮ বছর পূর্ণ হলে অথবা কলেজ জীবন শেষ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই প্রত্যেক ছেলে সন্তানকে সামরিক প্রশিক্ষণে পাঠাতে হবে।

আমিরের নির্দেশে বলা হয়েছে, এই প্রশিক্ষণের মেয়াদ হবে এক বছর। এর মধ্যে চার মাস প্রত্যেককে সরাসরি সামরিক প্রশিক্ষণ নিতে হবে এবং বাকি আট মাস যেকোনো একটি সরকারি অফিসে কাজ করতে হবে।

কাতারের বিরুদ্ধে বাইরের দেশগুলোর বিভিন্ন ধরনের হুমকি বেড়ে যাওয়ায় এ ধরনের পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে বলে ধারণা করছেন আন্তর্জাতিক সামরিক বিশেষজ্ঞরা। যারা সামরিক প্রশিক্ষণ নেবে না তারা সরকারি-বেসরকারি কোনো প্রতিষ্ঠানে চাকরির সুযোগ পাবে না বলেও আমিরের নির্দেশে উল্লেখ করা হয়।

সরকারি সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, প্রত্যেক পুরুষ নাগরিক ৪০ বছর বয়স পর্যন্ত দেশের সৈনিক হিসেবে গণ্য হবে এবং যুদ্ধের মতো কোনো পরিস্থিতির উদ্ভব হলে তাকে সেখানে অংশ নিতে হবে।

বর্তমানে কাতারে ২২ লাখ লোক বাস করে। এর মধ্যে মাত্র সাড়ে তিন লাখের কিছু বেশি সংখ্যক অধিবাসী দেশটির নাগরিক।

সূত্র: পার্সটুডে

সময় বাংলা/এসএস

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন