কুমিল্লায় শিশু হত্যার দায়ে পিতার যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

বারী উদ্দিন আহমেদ বাবর, কুমিল্লা প্রতিনিধি: কুমিল্লায় শিশু হত্যার দায়ে পিতার যাবজ্জীবন কারাদণ্ড
কুমিল্লার বুড়িচংয়ে আট মাস বয়সের শিশু সন্তান তাহসিন হত্যার দায়ে পিতার যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে কুমিল্লার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ৪র্থ আদালত। আজ মঙ্গলবার (১০ অক্টোবর) দুপর ২টায় এ রায় দেন বিচারক নূর নাহার বেগম শিউলী।

যাবজ্জীবন কারাদণ্ড প্রাপ্ত আসামি কুমিল্লার চান্দিনা উপজেলার খৈলকুড়ি গ্রামের আবদুল মতিনের ছেলে শাকিল মিয়া।

মামলার বাদী পক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট রেজ্জাকুল ইসলাম খসরু জানান, দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি শাকিলের সাথে কুমিল্লা নগরীর ২য় মুরাদপুর এলাকার মামুন মিয়ার মেয়ে সোনিয়া আকাতার লিপির বিয়ে হয়। তারা চান্দিনার পাশের বুড়িচং উপজেলার শাহ দৌলতপুরে ভাড়া থাকতো। পরে সোনিয়া জানতে পারে এর আগে শাকিল আরেকটি বিয়ে করেছে। সেখানে তার সন্তানও রয়েছে। এনিয়ে তাদের মধ্যে দাম্পত্য কলহ সৃষ্টি হয়। তার জের ধরে শাকিল তার ২য় স্ত্রী লিপির সন্তান তাহসিনকে ২০১৪ সালের ১৯মে গলা টিপে হত্যা করে। পরে লিপি বুড়িচং থানায় স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই দেবাশীষ সরকার একই সালের ৭ অক্টোবর আদালতে চার্জশিট জমা দেন। বিচারক সাক্ষ্য প্রমাণ গ্রহণ শেষে শাকিলকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড এবং ৫০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও এক বছর কারাদণ্ড প্রদান করেন।

মামলার বাদী তাহসিনের মা সোনিয়া আক্তার লিপি বলেন, এর আগেও আড়াই মাস বয়সের একটি ছেলেকে শাকিল হত্যা করেছে। প্রমাণ ছিলো না, তাই মামলা করিনি। তাছাড়া তার সাথে সংসারটাও করতে চেয়েছিলাম। তিনি রায়ে অসন্তোষ প্রকাশ করে বলেন, শাকিলের মতো মানুষের ফাঁসি হওয়া উচিত।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন