কোটা সংস্কার আন্দোলনের তিন নেতাকে মারধর

সময়বাংলা, ডেস্ক: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) টিএসসিস্থ সন্ত্রাসবিরোধী রাজু ভাস্কর্যে প্রতিবাদ সমাবেশ শেষে ফেরার সময় কোটা সংস্কার আন্দোলনের তিন নেতাকে মারধর করা হয়েছে। ছাত্রলীগ নেতারা আন্দোলনকারীদের মারধর করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

রোববার বিকাল পাঁচটার দিকে রাজধানীর এলিফ্যান্ট রোড়স্থ বাটা সিগন্যাল মোড়ে তাদের ওপর হামলা করা হয়। এতে আহত হয়েছেন কোটা আন্দোলনের যুগ্ম-আহ্বায়ক সোহরাব হোসেন, রাতুল সরকার ও নিয়াজী।

প্রত্যক্ষদর্শীসূত্রে জানা যায়, রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে সমাবেশ শেষে সিএনজি নিয়ে বের হয় কোটা সংস্কার আন্দোলনের এই তিন নেতা। এসময় দুটো বাইক নিয়ে তাদের পিছু নেয় কেন্দ্রীয় কমিটির কর্মসূচী ও পরিকল্পনা বিষয়ক উপ-সম্পাদক মুরাদ হায়দার টিপু, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাইদুর রহমান উজ্জ্বল, ঢাবির জহুরুল হক শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ম-সম্পাদক আমির হামজাসহ ছয়জন নেতাকর্মী। বাটা সিগন্যাল মোড়ে পৌঁছে সিনজির পথরোধ করে তারা। পরে আন্দোলনকারী তিনজনকে নামিয়ে ব্যাপক মারধর করা হয়। এসময় ট্রাফিক পুলিশ ও পথচারীরা মারধর করার কারণ জিঙ্গেস করলে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা তাদেরকে ছিনতাইকারী বলে মারধর করতে থাকে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে সাইদুর রহমান উজ্জ্বল বলেন, কোটা আন্দোলন শেষ হওয়ার পর আমি বাইক নিয়ে বাটা সিগন্যালে যাই। সেখানে এক সিএনজি চালকের সাথে আমার ঝামেলা হয়। কিন্তু সিএনজিতে থাকা তিনজনের সাথে আমার কোন কথা হয়নি।

সময়বাংলা/আইসা

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন

এ বিভাগের আরো খবর