খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে অস্ট্রেলিয়ায় বিক্ষোভ সমাবেশ ২১ ফেব্রুয়ারি

10216 bnp australia protest 2016সময় বাংলা, সিডনি: ভোটার বিহীন অবৈধ আওয়ামী লীগ সরকারের সীমাহীন মানবাধিকার লঙ্ঘন ও বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে আগামী ২১ ফেব্রুয়ারি অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী মালকম টার্নবুলের সিডনিস্থ কার্যালয়ের সামনে এক বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে।

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি অঙ্গ সহযোগী সংগঠন যুবদল, স্বেচ্ছাসেবকদল, জাসাস, জিয়া পরিষদ এবং আরাফাত রহমান স্মৃতি সংসদ অস্ট্রেলিয়ার উদ্যোগে এ বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে।

বিক্ষোভ সমাবেশে বিএনপির নেতৃবৃন্দের মধ্যে আরও উপস্থিত থাকবেন- বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদীদল বিএনপি অস্ট্রেলিয়ার সাবেক আহ্বায়ক প্রবীন রাজনীতিবিদ মো. দেলোয়ার হোসেন, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবকদল কেন্দ্রীয় কমিটির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক এবং বিএনপি অস্ট্রেলিয়ার সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক মো. মোসলেহউদ্দিন হাওলাদার আরিফ, অস্ট্রেলিয়ার সাবেক উপদেষ্টা ড. জহিরুল হক মোল্লা, সাবেকসহ সভাপতি আবুল হাশেম মৃধা জিলু, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী যুবদল অস্ট্রেলিয়া শাখার সভাপতি ইয়াসিন আরাফাত সবুজ, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবকদল অস্ট্রেলিয়া শাখার সভাপতি তারিক-উল- ইসলাম তারেক, জিয়া পরিষদ অস্ট্রেলিয়ার সভাপতি নাসিম উদ্দিন আহমেদ, জাসাস অস্ট্রেলিয়া শাখার সভাপতি আবদুস সামাদ শিবলু, নিউ সাউথ ওয়েলস বিএনপির সভাপতি কামরুল হাসান শামীম, যুবদল অস্ট্রেলিয়ার সাধারণ সম্পাদক এএসএম আবু সায়েম, স্বেচ্ছাসেবকদল অস্ট্রেলিয়া শাখার সাধারণ সম্পাদক এএনএম মাসুম, যুবদল অস্ট্রেলিয়া শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল কাশেম, জিয়া পরিষদ অস্ট্রেলিয়ার সাধারণ সম্পাদক আজাদ কামরুল হাসান, জাসাস অস্ট্রেলিয়া শাখার সাধারণ সম্পাদক আলী বশীর নুর, সিনিয়র সহ-সভাপতি ইকবাল মাহামুদ মাসুদ, আরাফাত রহমান কোকো স্মৃতি সংসদের সভাপতি আবদুল্যাহ আল মামুন ও সাধারণ সম্পাদক জেবেল হক জাবেদসহ অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

সমাবেশে মো. মোসলেহউদ্দিন হাওলাদার আরিফ বলেন, গণতন্ত্র ও রাষ্ট্র আজ এক গভীর রাজনৈতিক সংকটে। ৫ই জানুয়ারি  তামাশার নির্বাচনের মাধ্যমে তারা জোর করে ক্ষমতা দখল করে আছে। সরকারের গ্রেফতার, দমন পীড়ন ও নির্যাতন সীমাহীন মানবাধিকার লঙ্ঘন করে দেশকে ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে গেছে।

তিনি বলেন, জনগণের চাওয়া ছিল একটি নির্দলীয় সরকারের অধীনে নিরপেক্ষ নির্বাচন। এই সরকার জনগণের ভোটের অধিকার ও গণতন্ত্রকে হরণ করেছে।

সমাবেশে নেতৃবৃন্দ বলেন- গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে ও জনগণের প্রতিনিধিত্বশীল সরকার গঠনের লক্ষ্যে  প্রহসনের নির্বাচনের মাধ্যমে ক্ষমতা দখলের পর থেকেই অবৈধ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিরোধী নেতাকর্মীদের হত্যা, খুন ও গুম অব্যাহত রেখেছেন।

জনগণের প্রতিনিধিত্বশীল সরকার গঠনের মাধ্যমে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের জন্য শেখ হাসিনার পদত্যাগ ও নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন এবং বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে অবিলম্বে সাজানো দেশদ্রোহীতার মামলার প্রত্যাহার ও সকল রাজবন্দীদের মুক্তির দাবিতে অস্ট্রেলিয়ার সরকারের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করে বাংলাদেশের গণতন্ত্র রক্ষায় সহায়তা কামনা করে অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী জুলি বিশফ বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করা হবে।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন