চাঁদা না পেয়ে ইবি’র প্রজেক্ট ম্যানেজারকে বেধড়ক মারধর করেছে ছাত্রলীগ

নিজস্ব প্রতিনিধি: ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) অবকাঠামো উন্নয়ন কাজে নিয়োজিত আব্দুর রহমান নামের এক প্রজেক্ট ম্যানেজারকে বেধড়ক মারধর করেছে শাখা ছাত্রলীগ নামধারী বহিরাগত কয়েক কর্মী।

মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে নির্মাণাধীন রবীন্দ্র-নজরুল কলা ভবনের সামনে এ ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে বিশ্ববিদ্যালয় মেডিকেলে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, গত সোমবার বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক গ্রুপের অনুসারী ও বহিরাগত ক্যাডার বিপ্লব হোসেন বিপুল, ছাত্রলীগ কর্মী শাহরিয়ার আজম, গালিব, সোহাগসহ ৭/৮জন অবকাঠামো উন্নয়ন কাজে নিয়োজিত প্রজেক্ট ম্যানেজার আব্দুর রহমানের কাছে মোটা অংকের চাঁদা দাবি করে হুমকি দেয়।

চাঁদা উঠানোর জন্য মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় তারা আবারো ওই ম্যানেজারের কাছে যায়। এসময় ম্যানেজার চাঁদা দিতে অস্¦ীকৃতি জানালে বিপ্লব হোসেন ও তার সাথে থাকা কর্মীরা ম্যানেজারকে নির্মাণাধীন রবীন্দ্র-নজরুল কলা ভবনের সামনে কাঠের চোলা ও দেশীয় অস্ত্র দিয়ে বেধড়ক মারপিট শুরু করে।

উপর্যপুরি আঘাতে আব্দুর রহমান মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। এসময় পাশের কর্মরত শ্রমিকরা এগিয়ে আসলে তারা দৌড়ে পালিয়ে যায়। পরে তাকে জখম অবস্থায় উদ্ধার করে বিশ্ববিদ্যালয় মেডিকেলে নিয়ে যায়। সেখানে তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে কুষ্টিয়া সদর হাসপাতোলে পাঠানো হয়েছে।

আহত আব্দুর রহমানের সাথে কথা বলতে চাইলে তিনি কথা বলতে অপারগতা প্রকাশ করেন।

এ বিষয়ে বিশ^বিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জুয়েল রানা হালিম জানান, “ছাত্রলীগের কেউ এরকম ঘটনা ঘটাতে পারে না। যারা মারধর করেছে তারা সবাই বহিরাগত। ছাত্রলীগের না ভাঙ্গিয়ে যদি কেউ চাঁদাবাজি করে আমরা তার বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নিব।”

প্রক্টর প্রফেসর ড. মোঃ মাহবুবর রহমান বলেন, এখনো পর্যন্ত কোন অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেব।

ইবি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বলেন, যারা মারধর করেছে তাদের আটক করার চেষ্টা চলছে। এ ঘটনায় মামলা হবে।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন