জুড়ীতে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে বাঁশের সাঁকো দিয়ে পারাপার হচ্ছে স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা!

SHAKU-PIC-01হাবিবুর রহমান খান, সময় বাংলা, মৌলভীবাজার: মৌলভীবাজার জেলার  জুড়ী উপজেলার পশ্চিম জুড়ী ও জায়ফরনগর ইউনিয়নের মধ্য দিয়ে বয়ে যাওয়া জুড়ী নদীর উপড় নির্মাণ করা বাঁশের সাঁকো দিয়ে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পারাপার হতে হয় এলাকাবাসীসহ শিক্ষার্থীদের।

ওই সাঁকো দিয়ে জুড়ী মডেল উচ্চ বিদ্যালয় ও তৈয়বুন্নেছা খানম একাডেমী ডিগ্রি কলেজের ছাত্রছাত্রীসহ দু’টি ইউনিয়নের বেলাগাঁও, জাঙ্গিরাই, পশ্চিম হরিরামপুরসহ কয়েকটি গ্রামের সহস্রাধিক এলাকাবাসী ও পথচারীরা পারাপর হন। একসময় পানিতে সাঁতার কেটে নদী পার হতে হতো।

ব্রিজ না থাকায় জনদুর্ভোগের কথা চিন্ত করে পশ্চিম হরিরামপুর ও জাঙ্গিরাই গ্রামের বাসিন্দাদের উদ্যোগে চাঁদা তুলে জুড়ী নদীর উপর বাঁশের সাঁকো নির্মাণ করে যাতায়াত করছেন ছাত্রছাত্রী ও এলাকাবাসী। স্থানীয় লোকজন জীবনের ঝুঁকি নিয়ে বাঁশের সাঁকো দিয়ে পারাপার হলেও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নজরে পড়ছে না বিষয়টি।

এলাকাবাসী জানান, দেশ স্বাধীনের পর থেকে এখন পর্যন্ত এভাবেই বাঁশ দিয়ে তৈরি সাঁকো দিয়ে পার হচ্ছেন লোকজন। সংসদ, উপজেলা ও ইউনিয়ন পরিষদের ভোটের বৈতরণী পার হওয়ার জন্য অনেকেই প্রতিশ্রুতি দিয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।

কিন্তু নির্বাচিত হওয়ার পর ভুলে গেছেন এই ব্রিজটির কথা। জাঙ্গিরাই ও পশ্চিম হরিরামপুরে এলাকাবাসী জুড়ী নদীর উপর ব্রিজ নির্মাণ করা জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে জোর দাবি জানিয়েছেন।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন