জয় বাংলা স্লোগান দিয়ে কলেজ ছাত্রীর গায়ে হাত দিয়ে শ্লীলতাহানির চেষ্টা

সময়বাংলা ডেস্ক: এবার জয় বাংলা স্লোগান দিয়ে অদিতি বৈরাগী নামে এক কলেজ ছাত্রীকে অশ্লীল আচরণের অভিযোগ উঠেছে। ফেসবুকে দেয়া এক স্টাটাসে এমনটি বলেছেন মেয়েটি। মেয়েটির অভিযোগ ঢাকার বাংলামোটরে মিছিল থেকে ১০-১৫ জনের একটি দুষ্কৃতির দল মেয়েটিকে জয়বাংলা স্লোগান দিয়ে গায়ে হাত দিয়ে শ্লীলতাহানির করার চেষ্টা করে, এবং বেয়েটিকে প্রহার করে। ছেলেদের হাত থেকে নিজের শরীরকে রক্ষা করতে পারেননি অদিত বৈরাগী।  ছিড়ে যায় তার গায়ের জামাও। অথচ সেখানে তাকে সাহায্যের বদলে কেউ ছবি তোলা আর কেউ ভিডিও করার চেষ্টা করে বলেও অভিযোগ করে মেয়েটি। পরে  পুলিশ এসে মেয়েটিকে দুষ্কৃতিকারীদের কবল থেকে রক্ষা করে বাসে তুলে দেয়। এখন সে নিরাপদ রয়েছে তবে যে দেশে জয় বাংলা স্লোগান দিয়ে নারীদের অপমান করা হয়, সে দেশে তিনি থাকতে নারাজ।

ফেসবুকে দেয়া স্টাটাসটি তুলে ধরা হল:
শান্তিনগর মোড়ে এক ঘন্টা দাড়ায়ে থেকেও কোনো বাস পাইলাম না। হেটে গেলাম বাংলামটর। বাংলামটর যাইতেই মিছিলের হাতে পড়লাম। প্রায় ১৫-২০ জন আমাকে ঘিরে দাড়াইলো। ব্যস! যা হওয়ার থাকে তাই। কলেজ ড্রেস পড়া একটা মেয়েকে হ্যারাস করতেসে এটা কেউ কেউ ভিডিও করার চেষ্টা করতেসে। কেউ ছবি তোলার চেষ্টা করতেসে। আমার কলেজ ড্রেসের বোতাম ছিড়ে গেসে । ওড়নার জায়গাটা খুলে ঝুলতেসে। ওরা আমাকে থাপড়াইসে। আমার শরীরে হাত দিসে। আমার দুইটা হাত এতগুলা হাত থেকে নিজের শরীরটাকে বাচাইতে পারে নাই। একটা পুলিশ অফিসার এই মলেস্টিং চক্রে ঢুকে আমাকে বের করে এন্ড একটা বাস থামায়ে বাসে তুলে দেয়। বাকিটা পথ সেইফ্লি আসছি। প্রচন্ড শরীর ব্যথা ছাড়া আর কোনো কাটাছেড়া নাই। মেন্টালি ভয়াবহ বিপর্যস্ত বাট শারীরিক ভাবে ভালো আছি। আমি এই শুয়োরদের দেশে থাকব না। জয় বাংলা বলে যারা মেয়ে মলেস্ট করে তাদের দেশে আমি থাকব না। থাকব না। থাকব না…

পরে অবশ্য পোষ্টটি সরিয়ে নেন তিনি।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন

এ বিভাগের আরো খবর