ঝিনাইদহে পেঁয়াজের ফলন বিপর্যয়ে হতাশ কৃষক !

Picture Jhenaidahসময় বাংলা,ঝিনাইদহ : পারপোল ক্লোচ বা পাতামরা রোগে আক্রান্ত হয়ে ঝিনাইদহে পেঁয়াজের ফলন বিপর্যয়ের আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। উৎপাদন খরচ না উঠার আশঙ্কায় হতাশ কৃষক। কৃষকরা বলছেন, এ বিপর্যয়ের কোন সমাধান দিতে পারেনি কৃষি বিভাগের কর্মকর্তারা। ফলে হতাগ্রস্ত হয়ে পড়েছে তারা।

ঝিনাইদহ কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, জেলায় এবার পেঁয়াজ চাষ হয়েছে ৭,৮০০ হেক্টর জমিতে। এর মধ্যে শৈলকুপা উপজেলায় ৬,১২৫ হেক্টর, সদর উপজেলায় ৩৫০ হেক্টর, কালীগঞ্জ উপজেলায় ১৪৫ হেক্টর, কোটচাঁদপুর উপজেলায় ২১০ হেক্টর, মহেশপুর উপজেলায় ৬৮০ হেক্টর ও হরিণাকুন্ডু উপজেলায় ২৯০ হেক্টর জমিতে পেঁয়াজ চাষ হয়েছে। এর লক্ষ্যমাত্র ধরা হয়েছে ৬৮,৪৪৫ মে.টন।

একাধিক চাষী জানায়, পেঁয়াজ লাগানোর পর থেকে ঝিনাইদহের ৬টি উপজেলার বিভিন্ন মাঠে ভালো ফলন হওয়ার সম্ভাবনা ছিল। ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহে হঠাৎ বৃষ্টির পর থেকেই ক্ষেত আক্রান্ত হয় পারপোল ক্লোচ নামের ভাইরাসে। ব্যাপকভাবে মারা যায় পেঁয়াজের পাতা। এতে পেঁয়াজের দানা মোটা হয়নি। ফলে আশানুরূপ ফলনও পাওয়া যায় নি। এ বছর পেঁয়াজ চাষ করে কৃষকদের উৎপাদন খরচও ঘরে উঠছে না।

তারা আরও জানায়, আক্রান্ত হওয়ার সময় কৃষি কর্মকর্তারা কৃষকদের পরামর্শ দিলে এ ফলন বিপর্যয় হতো না। ঝিনাইদহ কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক শাহ মোহা. আকরামুল হক জানান, অতি বৃষ্টির কারণে দু’এক জায়গায় ফলন বিপর্যয় হলেও সারা জেলায় আশানুরূপ ফলন হয়েছে।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন