ঝিনাইদহে সেচ্ছসেবকলীগ কর্মীর আঙ্গুল কর্তন

16216 jhinaidohসময় বাংকা, ঝিনাইদহ : ঝিনাইদহে আধিপত্য বিস্তার ও ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে প্রার্থীতা নিয়ে দ্বন্দের জের ধরে রোববার বিকালে প্রতিপক্ষরা শরিফুল ইসলাম হুমো (৩২) নামে এক সেচ্ছাসেবকলীগ কর্মীকে কুপিয়ে জখম করেছে। হামলায় তার হাতের দুইটি আঙ্গুল কেটে পেড়ে যায়।

রোববার বিকাল ৩টার দিকে ঝিনাইদহ সদর উপজেলার নলডাঙ্গা পুরানো পুজা মন্দির চত্বরে এই হামলার ঘটনা ঘটে। আহত শরিফুল ইসলাম নলডাঙ্গা ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি ভিটসর গ্রামের আব্দুস সাত্তার মহুরীর ছেলে। তাকে উদ্ধার করে প্রথমে ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ও পরে আজ সন্ধ্যার দিকে যশোর আড়াইশ বেডে পাঠানো হয়।

ঝিনাইদহ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হাসান হাফিজুর রহমান জানান, রবিবার বিকালে শরিফুল ইসলাম নলডাঙ্গা বাজারে কেরামবোর্ড খেলছিলেন। এ সময় প্রতিপক্ষ ইউপি চেয়াম্যান রবিউল উসলাম রবি গ্রুপের লোকজন মটরসাইকেলে এসে শরিফুলকে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে ফেলে রেখে যায়।

তিনি আরো জানান, আধিপত্য বিস্তার ও আসন্ন ইউপি নির্বাচন নিয়ে নলডাঙ্গা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান যুবলীগ নেতা রবিউল ইসলাম রবি ও সাবেক চেয়ারম্যান দুর্বৃত্তদের হাতে নিহত রুহুল বিশ্বাসের ভাতিজা কবিরের মধ্যে দ্বন্দ চলে আসছে। সেই ঘটনার জের ধরে এই হামলার ঘটনা ঘটেছে। এ ব্যাপারে ঝিনাইদহ সদর থানায় মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।

তবে নলডাঙ্গা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম রবি জানিয়েছেন, এ ঘটনার সাথে তার কোন সম্পৃক্ততা নেই। উল্লেখ্য কয়েক বছর আগে নলডাঙ্গার চেয়ারম্যান রুহুল বিশ্বাসকে দুর্বৃত্তরা ঝিনাইদহ শহরের হামদহ এলাকায় কুপিয়ে হত্যা করে। রুহুল বিশ্বাস হত্যার পর উপ-নির্বাচনে রবিউল ইসলাম রবি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। রুহুল হত্যা মামলায় রবিকে আসামী করা হয়। মামলাটি এখন আদালতে বিরাধীন আছে।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন