পাহারাদার থেকে নায়ক হয়ে ওঠা নওয়াজের গল্প

সময় বাংলা: বলিউড তারকা নওয়াজ উদ্দিন সিদ্দিকির অনেক চড়াই উতরাই পেরিয়ে আজকের অবস্থানে আসতে হয়েছে। উত্তর প্রদেশের ছোট্ট একটি গ্রাম থকে দিল্লি, মুম্বাইতে এসে কঠিন সময় পার করেছেন তিনি। তিনি কঠোর পরিশ্রম করে আজকের অবস্থানে এসেছেন। কিন্তু অনেকেই  জানেন না তার পেছনের গল্প।

নদিয়ায় একটি খেলনা কারখানার পাহারাদার ছিলেন নওয়াজ। সম্প্রতি নদিয়ার সারদা বিশ্ববিদ্যালয়ে তার ছবি ‘বাবু মশাই বন্দুকবাজ’ এর প্রমোশনে গিয়েছিলেন। পুরনো স্মৃতি রোমন্থন করতে গিয়ে জানালেন এই নদিয়ারই একটি খেলনা কারখানায় তিনি ‘সিকিউরিটি গার্ড’ এর দায়িত্ব পালন করতেন। যা ছিল তার প্রথম চাকরি।

নওয়াজ বলেন, ‘নদিয়াতে আমি আমার প্রথম চাকরি পেয়েছিলাম। সিকিউরিটি গার্ড হিসেবে আমি ফ্যাক্টরির বাইরে দায়িত্ব পালন করতাম। ১৯৯৩ সালের আগে আমি মুজাফফর নগর থেকে এখানে এসেছি।’

অতীত মনে করতে গিয়ে তিনি আরো জানান, প্রথম চাকরিটি ধরে রাখার জন্য তিনি খুব আগ্রহী ছিলেন না। বলেন, ‘ফ্যাক্টরির মালিক আমাকে কয়েকবার ফ্যাক্টরির বাইরে বিশ্রাম করতে দেখেছিল এবং এ নিয়ে বেশ রাগারাগি করেছে। এরপর আমি চাকরি ছেড়ে দেই।’

উত্তর প্রদেশের ছোট্ট শহর মুজাফফর নগর থেকে নওয়াজ মুম্বাইতে ন্যাশনাল স্কুল অফ ড্রামায় ভর্তি হন। ২০১২ সালে ‘গ্যাং অফ ওয়াসেপুর’ দিয়ে আলোচনায় আসেন। এর আগে অনেক কঠিন সময় গেছে তার জীবনে।

বর্তমান সময়ে ছোট ছোট শহরগুলো থেকে সিনেমায় আসার সুযোগ অনেক বেড়ে গেছে। নওয়াজ বলেন, ‘প্রতিভা আর কাজের প্রতি নিষ্ঠা যার আছে তার কাজের অনেক সুযোগ রয়েছে। আপনার যদি তা উপলব্ধি করার ক্ষমতা থাকে তবে অনেক সুযোগ অপেক্ষা করছে।’

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন