পৌর নির্বাচনে ২৬ সাংবাদিক হামলার শিকার

সময় বাংলা ডেস্ক :

26 pic_1104642পৌরসভা নির্বাচনে পেশাগত দায়িত্ব পালনের ক্ষেত্রে বাধার সম্মুখীন হয়েছেন সাংবাদিকরা। বেসরকারি সংগঠন আর্টিকেল ১৯ সাংবাদিকদের কার্যক্রমে হস্তক্ষেপের ১০২টি ঘটনা রেকর্ড করেছে। সংগঠনটির এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

২৬৬টি কেন্দ্র পর্যবেক্ষণের কথা জানিয়ে এতে বলা হয়েছে, প্রাপ্ত তথ্যে দেখা যায়, ৪৭ জন সাংবাদিক পেশাগত দায়িত্ব পালন করার সময় নির্বাচনী কেন্দ্রে প্রবেশ করতে নির্বাচনী কর্মকর্তা, আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকরী বাহিনী, ক্ষেত্র বিশেষ প্রার্থীদের সমর্থকদের দ্বারা বাধাপ্রাপ্ত হয়েছেন।

২৬ জন সাংবাদিক মারধোরের শিকার হয়েছেন এবং ক্ষেত্র বিশেষ আহত হয়েছেন। ১১ জন সাংবাদিকের ক্যামেরা ছিনিয়ে নেয়া হয়েছে, ১৫ জন সাংবাদিককে ভোটকেন্দ্রের ছবি তুলতে বা ভিডিও ধারণ করতে দেয়া হয়নি। ২ জন সাংবাদিক নির্বাচনী দায়িত্ব পালন করার সময় গ্রেফতার হন এবং একজনকে দিনব্যাপী আটক করে রাখা হয়।

দুপুরের পর ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া পৌরসভার কোন কেন্দ্রেই ভোটার এবং সাংবাদিকদের প্রবেশ করতে দেয়া হয়নি। এছাড়াও বেশ কয়েকটি সেন্টারে সাংবাদিকদের প্রবেশ করতে দেয়া হয়নি। সাভারের ৬নং ইসলামপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে প্রথম আলোর যুগ্ম সম্পাদক সোহরাব হাসানকে কেন্দ্রে প্রবেশে বাধা প্রদান করা হয়েছে।

স্যাটেলাইট টেলিভিশন ৭১ এর সিনিয়র রিপোর্টার ফারহানা রহমানকে মারধোর করা হয় এবং ইন্ডিপেন্ডেন্ট টেলিভিশনের রিপোর্টার নাফিসা দৌলা বোমাবাজিতে আহত হন।

আর্টিকেল ১৯ বাংলাদেশ ও দক্ষিণ এশিয়ার আঞ্চলিক পরিচালক তাহমিনা রহমান মনে করেন দেশে গণতন্ত্রকে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দেয়ার জন্য নির্বাচনকালীন সময় সাংবাদিকদের পেশাগত দায়িত্ব সুষ্ঠুভাবে পালনের পরিবেশ নিশ্চিত করা রাষ্ট্রের একটি গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন