প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ ও প্রতিবেদন

সময়বাংলা, লেবানন : গত ৪ এপ্রিল কানাডা থেকে প্রকাশিত দ্যা গ্লোবাল নিউজ২৪ ডটকম পত্রিকায় “লেবানন আওয়ামী লীগের কমিটি ঘোষণা, সাঃ সম্পাদক পদে টিটু ইন, তপন আউট” নামক শিরোনামের প্রকাশিত সংবাদটির প্রতিবাদ জানিয়েছেন লেবানন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক তপন ভৌমিক।

বহু গুঞ্জনের পর গত রবিবার মহান স্বাধীনতা দিবস উদযাপনের অনুষ্ঠানে লেবানন আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির নতুন কমিটি ঘোষণা করা হয়। এতে সভাপতি, সিনিয়র সহ সভাপতি ও সাধারন সম্পাদকের নামও ঘোষণা কর হয় এবং আগামীতে খুব অল্প সময়ে পূর্নাঙ্গ কমিটি আসবে বলেও ঘোষণা আসে। দ্বিতীয় বারের মত সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন বাবুল মুন্সি, সিনিয়র সহ সভাপতি সুফিয়া আক্তার বেবী এবং সাধারন সম্পাদক মশিউর রহমান টিটু নির্বাচিত হয়েছেন। সদ্য বিলুপ্ত কমিটিতে সাধারণ সম্পাদক ছিলেন তপন ভৌমিক, তিনি গত দুইবার সাধারন সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন।

এদিকে গত রবিবারের পর টেলিভিশন, অনলাইন পত্রপত্রিকায় কমিটির ঘোষনার সংবাদটি ঢালাও ভাবে প্রচার করা হয়। কানাডা থেকে প্রকাশিত দ্যা গ্লোবাল নিউজ২৪ ডটকমে লেবানন প্রতিনিধি সাংবাদিক বাবু সাহার “লেবানন আওয়ামী লীগের কমিটি ঘোষণা, সাঃ সম্পাদক পদে টিটু ইন, তপন আউট” শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশ পায়। সাংবাদিক বাবু সাহা বাংলা ভিশনেরও লেবানন প্রতিনিধি। এছাড়াও আরো দু-একটি নাম নাজানা অনলাইন পত্রিকাতে তিনি সংবাদটি প্রকাশ করেছেন। এমন প্রতিবেদন ভূয়া, ভিত্তিহীন বলে মন্তব্য করেছেন তপন ভৌমিক। তিনি বলেন, লেবানন আওয়ামী লীগ গোছানো একটি ঘর, এই ঘরকে ভাঙ্গতে সাংবাদিক বাবু সাহা এমন ভিত্তিহীন সংবাদটি প্রকাশ করেছেন। আমি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের একজন সদস্য হিসেবে ও সাবেক সাধারন সম্পাদক হিসেবে এমন নিউজের প্রতিবাদ জানাই।

গত ৪ এপ্রিল কানাডা থেকে প্রকাশিত দ্যা গ্লোবাল নিউজ২৪ ডটকম পত্রিকায় “লেবানন আওয়ামী লীগের কমিটি ঘোষণা, সাঃ সম্পাদক পদে টিটু ইন, তপন আউট” নামক শিরোনামের প্রতিবাদ দিয়েছেন তপন ভৌমিক।

তপন ভৌমিক তার প্রতিবাদলিপিতে বলেন, আপনারা জানেন, দু একটি অনলাইন পত্রিকায় আমাকে নিয়ে সাংবাদিক বাবু সাহা বাজে মন্তব্য করেছেন এবং সাংবাদিক বাবু সাহার বরাত দিয়ে খবরটি প্রকাশও পেয়েছে। উক্ত সংবাদটি আমার দৃষ্টি গোচরে এসেছে। গণমাধ্যম কর্মীদের কাজ বস্তনিষ্ঠ্য সংবাদ পরিবেশন করা, এক্ষেত্র বাবু সাহা করেছেন তার উল্টো। আমি এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

তিনি বলেন, লেবানন আওয়ামী লীগের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী কমিটির মেয়াদকাল শেষ  হয়েছে এবং নতুন কমিটিও হয়েছে। আমার পক্ষ থেকে নবনির্বাচিত কমিটিকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন।

বিগত ২০১৪ সাল থেকে ২০১৮ সাল নাগাদ দুই মেয়াদকালে সততার সাথে আমি আমার দায়িত্ব পালন করে এসেছি। পর্যায়ক্রমে প্রতিটি নবনির্বাচিত কমিটিতে নতুন নতুন মুখ আসবে এবং দলের হাল ধরবে এটাই স্বাভাবিক। আবার আগামীতে নতুন কমিটির মেয়াদকাল শেষ হলে ফের কমিটি হবে। এটাই চলমান প্রক্রিয়া। এখানে সাংবাদিক বাবু সাহা তার প্রতিবেদনে যে কথাটি উল্লেখ করেছেন তপন ভৌমিল ‘আউট’ এর মানে কি দাঁড়ায়? আমি কি আওয়ামী লীগ থেকে পদত্যাগ করেছি, নাকি আমাকে বহিষ্কার করা হয়েছে?

আমি একজন বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক, আওয়ামী লীগে ছিলাম, আছি এবং ভবিষ্যতেও থাকব। শুধুমাত্র চেয়ারের জন্য রাজনীতি করিনা। আগামীতে দল চাইলে এরচেয়ে আরো বড়পদেও আমাকে অধিষ্টিত করতে পারেন। তাহলে ‘আউট’ হলাম কিভাবে? নবনির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক মশিউর রহমান টিটু আমারই সহকর্মী এবং সহযোদ্ধা। আমার পক্ষথেকে তাকে আন্তরিক অভিনন্দন।

বাবু সাহার উক্ত প্রতিবেদনটি মিথ্যা, বানোয়াট এবং ভিত্তিহীন বলে আমি মনে করি। এ প্রতিবেদনটিতে রাজনৈতিক, সামাজিক এবং পারিবারিক ভাবে আমাকে হেয় প্রতিপন্ন করা হয়েছে বলেও আমি মনে করি। আমি উক্ত সংবাদটির তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। সেইসাথে সকল সাংবাদিকবৃন্দ ভবিষ্যতে বস্তনিষ্ঠ্য সংবাদ পরিবেশনের মাধ্যমে সমাজের বাস্তব সত্য ঘটনাবলি তুলে ধরবেন বলে আমি আশা করছি।

 

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন