ফটিকছড়িতে মাদ্রাসার ছাত্রকে অমানবিক নির্যাতন

madrasa stdবিশেষ প্রতিনিধি, সময় বাংলা, চট্রগ্রাম: চট্টগ্রামের ফটিকছড়ি উপজেলার নানুপুর গাউছিয়া মাদ্রাসার এক ছাত্রকে অমানবিক ভাবে বেত্রাঘাত করেছে এক শিক্ষক। ছুটি শেষে নির্দিষ্ট সময়ে মাদ্রাসায় না আসার কারণে বুধবার সকালে এই বেত্রাঘাত করা হয় বলে জানা গেছে।

সূত্র জানায়, নানুপুর গাউছিয়া মাদ্রাসার হেফজ বিভাগের ছাত্র মো. রাহাত উদ্দিন (১১) সম্প্রতি মাদ্রাসা বন্ধ দিলে সে বাড়ি যায়। তার শারিরীক অসুস্থতার কারণে বন্ধের পর খোলার নির্দিষ্ট দিন মাদ্রাসায় হাজির হতে পারেনি।

বুধবার সকালে সে মাদ্রাসায় উপস্থিত হলে হেফজ বিভাগের শিক্ষক হাফেজ ফরিদ তাকে অমানবিক ভাবে মাথা হাটুর নিচে দিয়ে বেত্রাঘাত করে। পরে অন্যান্য শিক্ষকরা এসে রাহাত উদ্দিনকে মুক্ত করে। এতে তার পিটে, কোমরে, পায়ে, মাথায় সহ বিভিন্ন স্থানে জখম হয়।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত শিক্ষক হাফেজ ফরিদ উদ্দিনের মুঠোফোনে বার বার চেষ্টা করেও পাওয়া যায়নি।
তবে মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মুছলেহ উদ্দিন মাদানী বলেন, শিক্ষকের বেত্রাঘাতে ছাত্রের শরীরে ফুলা-জখম হয়েছে। তাকে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। তার অভিভাবককে ডেকে শিক্ষকের সাথে মিলমিশ করে দেওয়া হয়েছে। আর অভিযুক্ত শিক্ষকের কাছ থেকে আর কখনো ছাত্রকে বেত্রাঘাত করবেনা মর্মে মুছলেখা নেওয়া হয়েছে।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন