বগুড়ায় সরিষার হলুদ রঙে ভরে উঠেছে ফসলের মাঠ

untitled-1আল আমিন মন্ডল, সময় বাংলা, বগুড়া: বগুড়ার গাবতলী উপজেলার সর্বত্র এখন হলুদের বিশাল সমারোহ। চারদিকে সরিষার হলুদ রঙে ভরে উঠেছে ফসলের মাঠ। কৃষি বিভাগ ও কৃষকরা আশা করছেন বাম্পার ফলন। গাবতলী পৌরসভা’সহ উপজেলার ১১টি ইউনিয়নে কৃষকরা সরিয়ার চাষ করেছে। এবারে অভাবনীয় সাফল্যের আশায় বুক বেঁধেছেন তারা। সরিষা ক্ষেতে চাষীদের চোখে মুখে সেই যেন আনন্দের হাসি।

রামেশ্বরপুর আকন্দপাড়া গ্রামের সরিষা চাষী রবিউল ইসলাম জানান, এবারে ভাল ফলন হয়েছে। এটি আমার জমির দ্বিতীয় ফসল। এর আগে জমিতে অন্য ফসল ছিল। সরিষা উঠার পর ধান চাষ করবো। তবে সরিষার ফলনে দৃষ্টি যেন জুড়িয়ে যায়।

কাগইলের আহম্মেদপুর গ্রামের কৃষক আজাহার আলী জানান, শীতে সরিষা চাষে কোন সমস্যা হয়নি। ফলন ভাল হয়েছে। প্রতি বিঘায় ৬থেকে ৭মন সরিষা উঠতে পারে।

গাবতলী উপজেলা কৃষি অফিসার আঃ জাঃ মুঃ আহসান শহীদ সরকার জানান, এ মৌসুমে উপজেলাতে সরিষা চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারন করা হয়েছে ৫শ ৭১হেক্টর জমিতে। যার উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারন করা হয়েছে ৭শ ৫০মেট্রিক টন। তবে এবছরে সরিষা চাষের লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে যাবে।

উপ-সহকারী উদ্ভিদ সংরক্ষণ কর্মকর্তা জুলফিকার আলী হায়দার জানান, এবছরে আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে সরিষার বাম্পার ফলন হবে। ফলে কৃষকের মুখে হাসি ফুটবে।

কাগইল ইউনিয়নে দায়িত্বপ্রাপ্ত উপ-সহকারী কৃষি কর্মকতা জাহেদুর রহমান জাহিদ জানান, সরিষা একটি লাভ জনক ফসল। বেশি ভাগ ক্ষেত্রে সরিষা চাষ ঝুঁকিমুক্ত। তবে প্রতি বছরে উপজেলাতে সরিষার চাষ বাড়ছে।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন