‘বিএনপিকে অনুমতি দিলেও দোষ না দিলেও’

সময়বাংলা, ঢাকা: ‘বিএনপিকে কর্মসূচির অনুমতি দিলেও দোষ না দিলেও দোষ। তাদের কর্মসূচির অনুমতি না দিলে তারা বলে, সরকার গণতান্ত্রিক অধিকার হরণ করে স্বৈরতান্ত্রিক কায়দায় দেশ চালাচ্ছে। আর অনুমতি দিলে বলে, সরকার বাধ্য হয়েছে। প্রবলেম তো এখানে। এখন সরকার কোন দিকে যাবে।’

বুধবার সচিবালয়ে দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের দুঃখ করে এসব কথা বলেন।
বিএনপির সমালোচনা করে তিনি বলেন, সরকার যদি স্বৈরতান্ত্রিকভাবে দেশ চালাত, সরকারের যদি আন্তরিকতা না থাকত, তাহলে ২৭ মার্চ জনগণকে কষ্ট দিয় প্রকাশ্য রাস্তায় স্বাধীনতা র‌্যালি করল কিভাবে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, স্বাধীনতা দিবসে তারা তাদের মত করেই শোভাযাত্রা করলো, তাতে প্রমাণ করে সরকার স্বৈরতান্ত্রিক কায়দায় দেশ চালাচ্ছে? অনুমতি পেয়েও কি তার এই কথা বলবে? নাকি এই কথা বলবে সরকার বাধ্য হয়েছে? তাদের অনুমতি দিলেও দোষ না দিলেও। তারা মিথ্যার রাজনীতি করে। এটাই বিএনপির ন্যাচার। এভাবেই তারা কথা বলছে।

স্বাধীনতা র‌্যালির কর্মসূচি নিয়ে তারা কি বলবে- সরকার বাধ্য হয়েছে? তারা (বিএনপি) বাংলাদেশে এমন কী মহাপ্লাবন ঘটিয়েছে যে, সরকার বাধ্য হবে। সেই সামর্থ্য-সক্ষমতা কি বিএনপি গত ৯ বছরে ৯ মিনিটের জন্যও দেখাতে পেরেছে! সামনে তো প্রশ্নই আসে না- বলেন আওয়ামী লীগের এই শীর্ষনেতা।

ওবায়দুল কাদের বলেন, পুরনো কথা বলতে গেলে তাদের লজ্জা পাওয়া উচিত, কিন্তু লজ্জা তারা পাবে না। কারণ তারা লজ্জা পাওয়ার দল না। তারা যখন ক্ষমতায় ছিল আমরা তখন বিরোধী দল। আমরা বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে কর্মসূচি দিয়েছিলাম। আমাদের অনুমতি দেওয়া হয়নি। অফিসের ভেতরে কর্মসূচি করতে চেয়েছিলাম, সভা করতে দেয়া হয়নি। তারা নিজেরা যখন ক্ষমতায় ছিল এসব সুযোগ-সুবিধা কাউকে দেননি। গণতান্ত্রিক সব অধিকার তারা হরণ করেছে। তারপরও আমরা তাদের কর্মসূচি করতে দিচ্ছি।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন

এ বিভাগের আরো খবর