বৈরুত দূতাবাসে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প

সময় বাংলা,লেবানন :

Untitled-1বিনামূল্যে সাস্থসেবা এবং ঔষধ পেয়েছে লেবানন প্রবাসিরা। এ উপলক্ষে বৈরুত দূতাবাসে মেডিকেল ক্যাম্প করা হয়। বাংলাদেশ দূতাবাস বৈরুত এবং ইউনিফেল থেকে লেবাননে অবস্থিত  বাংলাদেশ নৌবাহিনীর, বিএসএন আলী হায়দারের যৌথ সহযোগীতায় গতকাল প্রবাসিদের এই সাস্থসেবা দেয়া হয়।

বাংলাদেশ নৌবাহিনীর কন্টিজেন্ট ছয়ের কমান্ডার ক্যাপটেন মোস্তফা কামাল নাসেরে নেতৃত্বে ১৬ সদস্যের একটি টিম প্রবাসিদের সুসাস্থের স্বার্থে সেবা প্রধান করেন।

সার্জন লেঃ কমান্ডার ডাঃ মো. ইয়াছিনের সাথে ঔষধ বিতরেন সাহায্য করেন ৬ জন এবং সেচ্ছাসেবকের দায়িত্ব পালন করেন ১০ জন। এছারা দূতাবাসের সকল কর্মকর্তা সহযোগীতায় উপস্থিত ছিলেন।

ডাঃ ইয়াছিন জানান, প্রবাসিদের এমন সেবা দিতে পেরে তিনি খুব আনন্দিত,তিনি ভবিষ্যতেও চেষ্টা করবেন এই সেবা বহাল রাখার জন্য।

এদিকে গুরুত্বর অসুস্থ দুজন মহিলা রুগী তিনাদের মনের ভাব প্রকাশ করে জানান, ভাষা না বুঝায় আবার অসুস্থতার দারুন কাজ করতে না পারায় টাকার অভাবে ভাল চিকিৎসা নিতে পারেন নি। একবার তিনারা টাকা জমিয়ে লেবানিস ডাক্টারের নিকট গিয়েছিলেন, কিন্তু ভাষা না বুঝায় সূচিকিৎসা পাননি। দূতাবাসের মেডিকেল ক্যাম্প থেকে সেবা এবং ঔষধ পেয়ে খুব খুশি। তিনারা আরো জানান, এখানে টাকাও লাগেনি আবার বিনামূল্যে ঔষধ পেয়েছেন, আবার ডাক্তারকেও তিনাদের রুগের কথা খুলে বলতে পেরেছেন।

ক্যাপ্টেন মোস্তাফা কামাল নাসের জানান, তিনি খুব আনন্দিত , শুধু প্রবাসিদের নয় বাংলাদেশ আর বাংলাদেশিদের মঙ্গলার্থে তিন সব কিছু করতে প্রস্তুত।gggg

দূতাবাসের মান্যবর রাষ্ট্রদূত আব্দুল মোতালেব সরকার জানান, প্রবাসিদের শুধু অর্থনৈতিক সমস্যা নয়, সাথে সাথে তাদের ভাষার সমস্যাও রয়েছে। যার দরুন প্রবাসিরা ডাক্টাররের নিকট যেতে পারেন না। এসব জানার পর বাংলাদেশ নৌবাহিনীর ডাক্টারদের সাথে কথা বলে এই সেবার ব্যবস্থা গ্রহন করি।

এদিকে প্রবাসিদের বিশাল উপস্থিতিতে রাষ্ট্রদূত আনন্দ প্রকাশ করেন, দুরদুরান্ত থেকে অনেকে অনেক কষ্টকরে এসেছে চিকিৎসা সেবা নেয়ার জন্য সে জন্য প্রবাসিদের ধন্যবাদ জানান।

আগামী দিন গুলোতে এইচেষ্টা অব্যহত থাকবে, প্রত্যেক মাসে অন্তত একবার এই মেডিকেল ক্যাম্প চালু রাখার আশা  ব্যক্ত করেন রাষ্ট্রদূত। কিছটা হলেও প্রবাসিদের মাঝে তিনি এই সেবার ব্যবস্থা করতে পেরে তিনি আবার আনন্দ প্রকাশ করেন।

 

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন