মমিনুল ও লিটনের দৃঢ়তায় চট্টগ্রাম টেষ্ট ড্র

অবশেষে ৫ সেঞ্চুরী আর দলীয় রানের পাহাড়ে পড়া চট্টগ্রাম টেস্ট ড্র হয়েছে।

প্রথম ইনিংসে মমিনুুলের ১৭৬, মুসফিকের ৯২ ও অভিষিক্ত অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের ৮৩ রানের দৃঢ়তায় বাংলাদেশ ৫১৩ রান সংগ্রহ করে। যা বাংলাদেশী যে কোন অধিনায়কের অভিষিক্ত রানের রেকোর্ড টেস্টে।

কুশাল মেন্ডিসের ১৯৬, ডি সিলভার ১৭৩,রোশানের ১০৯ আর চান্ডিমালের ৮৭ রানের উপর ভর করে শ্রীলঙ্কাও দলীয় পাহাড় সমান ৭১৩ রান করেন। ২০০ রানের লিডে থাকার পর বাংলাদেশ আবার মমিনুল ও লিটন দাসের ব্যাটে ম্যাচে ফিরে এবং টেস্টটি ড্র হয়।

এর ফলে বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের হিসেবে এক টেস্টে দুই সেঞ্চুরির মালিক এখন শুধুমাত্র মুমিনুল। এর আগে এমন রেকর্ড ছিলনা আর কোনো বাংলাদেশি ক্রিকেটারের।

চট্টগ্রাম জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে প্রথম ইনিংসে মমিনুল খেলেন ১৭৬ রানের এক ঝলমলে ইনিংস। মমিনুলের ১৭৬ রানে ভর করে বাংলাদেশ করে ৫১৩ রান। যদিও লঙ্কানরা এরপরও ৭১৩ করে ২০০ রানের লিট নেয়।

টেস্টের চতুর্থ দিনে ২০০ রানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করা টাইগাররা চাপে পরে যায় দলীয় ৮১ রানে ৩ উইকেট হারিয়েই। যদিও একদিকে স্তম্ভ হিসেবে দাড়িয়ে থেকে প্রথম ইনিংসে ১৭৬ রান করা মমিনুল ব্যাট হাতে দলকে টেনে তুলেছেন ২য় ইনিংসেও। প্রথম ইনিংসে এতো রান করার পর হেরে যাওয়ার লজ্জায় পরে যাওয়ার শঙ্কাকে দূর করেন বাংলাদেশের ব্যাটিং স্তম্ভ মমিনুল।

লিটন দাসকে সাথে নিয়ে গড়েন ১৮০ রানের পার্টনারশিপ। এই পার্টনারশিপের ফলে দলীয় শিবিরে এখন সস্থির হাওয়া বইছে। ১০৫ রান করা মমিনুল ১৭৪ বল খেলেছেন যেখানে আছে ৫ চার ২ টি দৃষ্টিনন্দন ছক্কা।

আপরদিকে লিটন দাশ অল্পের জন্য মিস করেছেন শতক। মারকুটে এই ব্যাটসম্যান ১৮২ বল খেলে ৯৪ রান করার পর হেরাথের বলে দিলরুয়ান পেরেরার তালুবন্দী হন। এই রান করতে লিটন ১১ বাউন্ডারি হাকিয়েছেন।

এই ড্রয়ের মাধ্যমে বাংলাদেশ টেস্টে ১৬তম ড্র করলো। এর পরের ও শেষ টেস্ট অনুষ্ঠিত হবে শেরে বাংলা ন্যাশনাল স্টেডিয়ামে ৮ ফেব্রুয়ারী। সেই ম্যাচে দুদলই জেতার ছক আকঁবে, শেষ হাসি কারা হাসবে এটাই এখন দেখার বিষয়।

যদিও বাংলাদেশ শেষ টেস্ট জিততে বা ড্র করতে পারলে তাদের সামনে থাকবে সমূহ সুযোগ টেস্টে উইন্ডিজদের টপকে ৮ এ উঠার। বর্তমানে টেস্ট র‍্যাংকিংয়ে ৭২ রেটিং নিয়ে ৯’য়ে অবস্থান করছে বাংলাদেশ। একই রেটিংয়ে একধাপ উপরে ৮’য়ে রয়েছে উইন্ডিজ।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন