মোদি একজন নির্বাচিত জঙ্গি: পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী

সময় বাংলা ডেস্ক: যতদিন যাচ্ছে ভারত-পাকিস্তান প্রতিবেশী দু’দেশের মধ্যে সম্পর্ক আরও যেন খারাপ হচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে সরাসরি আক্রমণ করলেন পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী খাজা মুহাম্মদ আসিফ হিনা রাব্বানি। বলেন, “প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আসলে একজন ‘নির্বাচিত জঙ্গি’। যার হাতে গুজরাটের মুসলিমদের রক্ত লেগে রয়েছে।”

এক সাক্ষাৎকারে আসিফ বলেন, ভারতের জনগণ একজন জঙ্গিকে সে দেশের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নির্বাচিত করেছে।

টেনে আনেন আরএসএস বা রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘকেও। আরএসএস আসলে একটি জঙ্গিগোষ্ঠী, এমনটাই মত পাকিস্তান পররাষ্ট্রমন্ত্রীর।

পাকিস্তানের একটি সংবাদমাধ্যমকে দেয়া সাক্ষাৎকারে খাজা আসিফ ২০০২ সালে ঘটে যাওয়া গোধরা কাণ্ডের প্রসঙ্গ টেনে বলেন, “প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আসলে একজন ‘নির্বাচিত জঙ্গি’, যার হাতে গুজরাটের মুসলিমদের রক্ত লেগে রয়েছে।”

সেই সঙ্গে যোগ করেন, “সুষমা স্বরাজের দাবি অনুযায়ী পাকিস্তান সন্ত্রাসবাদে ইন্ধন যোগাচ্ছে, কিন্তু তাদের নিজেদের দেশেই একজন জঙ্গি প্রধানমন্ত্রী পদে রয়েছেন। পাশাপাশি আরএসএসের মতো একটি সন্ত্রাসবাদী দল দেশটাকে চালনা করছে।”

এখানেই শেষ নয়, খোয়াজার অভিযোগ, গো-রক্ষার নামে ভারতে মুসলমানদের ওপর অত্যাচার চালানো হচ্ছে। তাদের খুন করা হচ্ছে।
তিনি বলেন, ‘যখন কোনও দেশের জনগণ একজন জঙ্গিকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নির্বাচিত করে তখন কিছু বলার থাকে না।’

অনুষ্ঠানের সঞ্চালক যখন প্রশ্ন তোলেন, একজনের সম্পর্কে আচমকা এ ধরনের মন্তব্য করা কি ঠিক? তখন আসিফ তুলে আনেন উত্তরপ্রদেশের নির্বাচনের প্রসঙ্গ। বলেন, ‘উত্তরপ্রদেশে বিজেপি সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়েছে, কারণ তারা হিন্দুদের উঁচু জাতের সমর্থন আদায় করতে পেরেছে।’

এদিকে, সম্প্রতি প্রকাশিত একটি রিপোর্টে জানা গেছে, পাকিস্তানের জেলে বন্দী ভারতের সাবেক নৌ-সেনা কর্মী কুলভূষণ যাদবের সঙ্গে পেশোয়ারে হামলাকারীকে বিনিময় করতে চায় আফগানিস্তান। কিন্তু সেই খবরও এদিন ভুয় বলে জানান পাকিস্তানি পররষ্ট্রমন্ত্রী। সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন