রাজধানীর বিভিন্ন থানায় বিএনপির বিক্ষোভ

সময় বাংলা, ঢাকা: ৫ জানুয়ারি ‘গণতন্ত্র হত্যা দিবস’ উপলক্ষে গতকাল ঢাকায় বিএনপি সমাবেশের অনুমোতি না পাওয়ার প্রতিবাদে শনিবার রাজধানীর বিভিন্ন থানায় বিক্ষোভ মিছিল করেছে দলটির নেতাকর্মীরা।

বিএনপি দলীয় সূত্রে জানা গেছে, বাড্ডা থানা বিএনপির একটি বিক্ষোভ মিছিল বাড্ডা লিংক রোড থেকে শুরু হয়ে বাড্ডা সুবাস্তু টাওয়ারের সামনে এসে শেষ হয়। মিছিলে নেতৃত্ব দেন ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক এজিএম শামসুল হক, মো. আবুল হোসেন, মাফুজুর রহমান চেয়ারম্যান, তহিরুল ইসলাম তুহিন, মাহবুব আলম শাহীন, আব্দুল কাদের বাবু, মিরাজ উদ্দিন বাদল, আব্দুল কাদির, তাজুল ইসলাম, আলী হোসেন চেয়ারম্যান প্রমুখ। মিছিলে থানা বিএনপি ও সকল অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

পল্লবী থানা বিএনপি একটি মিছিল কমিশনার মো. সাজ্জাদ ও বুলবুল মল্লিকের নেতৃত্বে শুরু হয়। মিছিলে অন্যান্যদের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন মো. সোহরাব হোসেন, আবুল কালাম, আমান উল্লাহ আমান সহ বিএনপি ও সকল অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

তেজগাঁও থানা বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল এল. রহমানের নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলে আরও উপস্থিত ছিলেন মজিবুর রহমান কাজী, ইঞ্জিনিয়ার মিরাজ হায়দার আরজু, আবু জাফর পাটয়ারী বাবু, শাহ আলম হাওলাদার, হাফিজুর রহমান কবির, নুরুজ্জামান রিপন টগর, কাজী বাবু, সোহেল, জামান হোসেন, রুবেল মামুন, জুয়েল সহ থানা বিএনপি ও সকল অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ। মিছিলটি বিজয় স্মরণী সড়কে অনুষ্ঠিত হয়।

শেরে বাংলা নগর থানা বিএনপির একটি মিছিল সিরাজুল ইসলাম সিরাজ, শাহ আলম, তোফায়েল আহম্মেদ, আব্দুল কাদের লুটুল, নাছির, শামীম, ফরিদ, ফারুক, সোহেল সহ থানা বিএনপি ও সকল অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দের অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলটি স্কয়ার হাসপাতালের সামনে থেকে শুরু হয়ে সমরিতা হাসপাতালের সামনে গিয়ে পুলিশি বাঁধায় পন্ড হয়ে যায়।

মোহাম্মদপুর থানা বিএনপির একটি বিক্ষোভ মিছিল আনন্দ বিদ্যালয় হতে শুরু হয়ে শিশু মেলায় এসে শেষ হয়। মিছিলে নেতৃত্ব দেন আলহাজ্ব বজলুর রহমান ও আলমগীর হোসেন লাবু। আরো উপস্থিত ছিলেন মো. হারুন, মুরাদ কাদের, মো. সাইদ, সিরাজুল ইসলাম, রাজু ভান্ডারী সহ বিএনপির সকল অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ।
রামপুরা থানা বিএনপির একটি বিক্ষোভ মিছিল ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক সাইফুর রহমান মিহিরের নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলে অংশগ্রহণ করেন জহিরুল ইসলাম ভূইয়া জহির, আহসান হাবিব ডন, মনিরুল ইসলাম, মোর্শেদ আলম বাবু, সাইদুল ইসলাম শাহীন, আহসান হাবিব ডন, রুবেল হক বিসু, রবিউল ইসলাম, মো: স্বপন, আরিফুর রহমান শামীম, লোকমান, আমজাদ হোসেন, হাবিবুর রহমান হাবিবসহ থানা বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

রূপনগর থানা বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল রূপনগর আবাসিক এলাকা থেকে শুরু হয়ে দুয়ারী পাড়া গিয়ে শেষ হয়। উপস্থিত ছিলেন আব্দুল আউয়াল, ইঞ্জিঃ মজিবুল হক, এস,এম মজিবুর রহমান, আমজাদ হোসেন মোল্লা, আলী আহমেদ রাজু, হাসান রানা, হাফিজ আহমেদ, কামাল হোসেন সহ বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।
উত্তরখান থানা বিএনপির একটি মিছিল বেপারী রোড থেকে শুরু হয়ে চৌরাস্তা গিয়ে শেষ হয়। পুলিশী বাধায় মিছিলটি পন্ড হয়ে যায়।

বিমানবন্দর থানা বিএনপির ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক মো. নাসির উদ্দিনের নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল বিমানবন্দর বাজার থেকে শুরু করে চৌরাস্তায় গিয়ে শেষ হয়। মিছিলে আরও উপস্থিত ছিলেন থানা বিএনপির প্রচার সম্পাদক মো. জাহাঙ্গীর, মো. দেলোয়ার, মো. জুলহাজ, মো. লিটন সহ থানা বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

উত্তরা পূর্ব থানা বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল এমএ মনির হাছান এর নেতৃত্বে ডি.পি.এস স্কুলের সামনে থেকে শুরু হয়ে রাজউক স্কুলের সামনে এসে শেষ হয়। মিছিলে আরো উপস্থিত ছিলেন এস.এম হান্নান মিলন, মো. জাহিদ মাষ্টার, মো. বিল্লাল, জিয়া, প্রিন্স, মাহিদ, মাসুম, আলম, লুৎফর সহ বিএনপি ও সকল অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

উত্তরা পূর্ব থানা বিএনপির আরেকটি বিক্ষোভ মিছিল মো. মতিউর রহমান মতির নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয়। উত্তরা ৪নং সেক্টর থেকে শুরু হয়ে কিছুদূর অগ্রসর হলে মিছিলটি পুলিশী বাঁধায় পন্ড হয়ে যায়। মিছিলে উপস্থিত ছিলেন আকরাম শুভ, সুমন হোসেন, মো. লিয়াকত হোসেন খন্দকার সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

উত্তরা পশ্চিম থানা বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল মো. আফাজ উদ্দিনের নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয়। আবদুল্লাহপুর থেকে শুরু হয়ে ১০ নম্বর সেক্টরে এসে শেষ হয়। এসময় থানা বিএনপি ও সকল অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

উত্তরা পশ্চিম থানা বিএনপির আরেকটি মিছিল হাজী মো. জাহাঙ্গীর আলম জাকিরের নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয়। এতে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মো. আলাউদ্দিন, জামাই মোস্তফা, আনোয়ার, শাকিল, মজনু, শাহআলম সহ থানা বিএনপি ও সকল অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ। মিছিলটি উত্তরা ১০নং সেক্টর থেকে শুরু হয়ে চৌরাস্তায় গিয়ে শেষ হয়।

উত্তরা পশ্চিম থানার আরেকটি মিছিল হাজী দুলালের নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলটি হাউজ বিল্ডিং থেকে শুরু হয়ে ৪নং সেক্টরে এসে শেষ হয়। মিছিলে থানা বিএনপি ও সকল অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
উত্তরা পশ্চিম থানার বিক্ষোভ মিছিল মোস্তফা কামাল হৃদয়ের নেতৃত্বে সাইদগ্রান থেকে হাউজ বিল্ডিং পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন মনছুর আহমেদ, মো. সুমন, তোজাম্মেল হক সোহাগ, নাছির সহ বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

মিরপুর থানা বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল এস.এ ছিদ্দিক সাজু ও দেলোয়ার হোসেন দুলুর নেতৃত্বে প্রশিকা ভবনের সামনে থেকে শুরু করতে গেলে পুলিশী বাঁধায় তা পন্ড হয়ে যায়।

দারুস সালাম থানা বিএনপির একটি মিছিল ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির সহ-সভাপতি মো. মাসুদ খানের নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলটি দিয়াবাড়ি বাসষ্ট্যান্ড থেকে মাজার রোডে এসে শেষ হয়। মিছিলে হাজী আব্দুর রহমান, হাফিজুল হাসান শুভ্র, আলমগীর হোসেন ভুট্টু, হুমায়ুন কবির সহ থানা বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ অংশগ্রহন করে।

দারুস সালাম থানা বিএনপির আরেকটি মিছিল এইচ.এম ইমরান, মো. ফারুক হোসেন, নজরুল ইসলাম ও আফজাল হোসেনের নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলটি দিয়াবাড়ি বাসষ্ট্যান্ড থেকে মাজার রোডে এসে শেষ হয়। এতে থানা বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের সকল নেতৃবৃন্দ অংশগ্রহন করে।

ভাষানটেক থানা বিএনপির একটি বিক্ষোভ মিছিল কচুক্ষেত বাজার এর সামনে থেকে শুরু করতে গেলে পুলিশি বাঁধায় মিছিলটি পন্ড হয়ে যায়। মিছিল থেকে একজনকে গ্রেফতার করে নিয়ে যায়।

দক্ষিণখান থানা বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল হাজী ক্যাম্প থেকে শুরু হয়ে বিমান বন্দর ষ্টেশনের নিকট আসলে পুলিশি বাঁধায় পন্ড হয়ে যায়। মিছিলে উপস্থিত ছিলেন মোঃ আমিরুল ইসলাম বাবুল, আমানউল্লাহ আমান, জাহাঙ্গীর আলম, মোখলেস দুলাল, জিয়া, গিয়াস, আলী হোসেন, রাজ সহ থানা বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

দক্ষিণখান থানা বিএনপির আরেকটি মিছিল দক্ষিণখান বাজার থেকে মোল্লারটেক পর্যন্ত গেলে পুলিশী বাঁধায় মিছিলটি পন্ড হয়ে যায়। মিছিলে নেতৃত্ব দেন মো. ইসমাঈল হোসেন, আলী আকবর আলী, দেওয়ান মো. নাজিম উদ্দিন, বাবলু, শাহজালাল সহ থানা বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

তুরাগ থানা বিএনপির একটি বিক্ষোভ মিছিল আবু তাহের খান আবুলের নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলে আরো অংশগ্রহণ করে ওমর আলী, রেজাউল করিম, মিছির আলী, আব্দুল আউয়াল, মোয়াজ্জেম, বকুল সহ থানা বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। মিছিলটি ৫নং সেক্টর থেকে শুরু হয়ে ২নং সেক্টরে পৌঁছালে পুলিশি বাঁধায় মিছিলটি পন্ড হয়ে যায়।

বিক্ষোভ মিছিল সফল করায় ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির সভাপতি এম.এ কাইয়ুম এবং সাধারণ সম্পাদক আহসান উল্লাহ হাসান ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপি’র সর্বস্তরের নেতকর্মীদেরকে প্রাণঢালা শুভেচ্ছা ও ধন্যবাদ জানান।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন

এ বিভাগের আরো খবর