রায়পুরে সরকারি কলেজে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগীতায় পুরুস্কার বিরতণ

দেলোয়ার হোসেন মৃধ্যা, সময় বাংলা, লক্ষীপুর: লক্ষ্মীপুরে রায়পুর উপজেলায় আজ শনিবার দুপুরে সরকারি কলেজ মাঠে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগীতা, পুরুষ্কার বিতরনী সভা অনুষ্ঠিত হয়। কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুল কাদেরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন লক্ষ্মীপুর- ২ আসনের সংসদ মোহাম্মদ নোমান।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রায়পুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মাষ্টার আলতাফ হোসেন হাওলাদার, ভাইস চেয়ারম্যান মাজেদা বেগম, পৌর আ’লীগের আহবায়ক কাজী জামশেদ কবির বাক্কি বিল্লাহ, পল্লী বিদ্যুতের ডিজিএম সুধাস চন্দ্র রক্ষিত, মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ হেলাল উদ্দিন, জাতীয় পার্টির সভাপতি আনোয়ার হোসেন বাহার, পৌর সভাপতি ইলিয়াস কবির, জাতীয় পার্টি নেতা ফারুক মোল্যা, মনির হোসেন মোল্যা, আরও উপস্থিতি ছিলেন সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মারুফ বিন জাকরিয়া, ছাত্রলীগ নেতা মহসিন পাটওয়ারী, সাদ্দাম হোসেন পাটওয়ারী, সমাজসেবক ডেন্টিষ্ট মুরাদ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আব্দুর রশিদ ও ফিরোজ আলম। অন্যনের ছিলেন কলেজের শিক্ষক মন্ডলী, ছাত্রছাত্রী, অভিভাবক, সাংবাদিক, গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ। পরে সাংস্কৃতি অনুষ্ঠানর মাধ্যমে সভার সমাপ্তি ঘটে।

প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, আজকের অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে অনেকের মুখোশ উন্মোচন হয়েছে। আজ থেকে ২৯ বছর আগে তথাকথিক স্বৈরাচার হোসেন মোহাম্মদ এরাশাদই এই সরকারি কলেজ প্রতিষ্ঠান করে দিয়েছেন রায়পুর বাসীর জন্য। সেই ২৯ বছর আগে যে অঙ্গ তিনি প্রতিষ্ঠা করে গিয়েছেন তার আর কোন প্রতঙ্গ সৃষ্টি হয়নি। তার গায়ে কোন অলংকার লাগেনি। এই দায় কার ? এই ব্যার্থতা কার ? নতুন চিন্তা, নতুন ভাবনার মধ্যে দিয়ে বিগত দিনের ব্যার্থতা মুছে দিয়ে নতুন রূপে এগিয়ে যেতে হবে এই হোক আমাদের অঙ্গিকার। তিনি সরকারি কলেজের প্রবেশের রাস্তাটি সংস্কারের ঘোষনা দেন এবং একটি কলেজ আবাসিক হোটেল স্থাপন ও বিশুদ্ধা খাওয়ার পানির একটি ডিপ টিউবওয়েল স্থাপন করার ঘোষনা দেন।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন