শাহবাগ এলাকায় তীব্র যানজটে দুর্ভোগ, বিএনপির ক্ষমা প্রার্থনা

>190316 dhakaসময় বাংলা, ঢাকা: বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির ষষ্ঠ জাতীয় কাউন্সিল ঘিরে শাহবাগ এলাকায় তীব্র যানজট সৃষ্টি হয়েছে। রাস্তার দুই পাশে আটকা পড়েছে শতশত গাড়ি। এতে দুর্ভোগে পড়েছেন সমাবেশে আসা নেতা-কর্মীসহ সাধারণ মানুষ। আজ শনিবার সকাল থেকেই নেতা-কর্মীরা মিছিল সহকারে সমাবেশ স্থলে জমায়েত হচ্ছেন। এতে শাহবাগ, কাটাবনসহ রাজধানীর রামপুরা-বাড্ডা ও মতিঝিল এলাকার রাস্তার দুই পাশে শতশত গাড়ির জটলা বেঁধে গেছে। এতে করে কর্মমুখী মানুষ রাস্তায় আটকা পড়ে দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন। বিএনপি নেতারা এ পরিস্থিতির জন্য দায়ী করছেন পুলিশ প্রশাসনকে। কাউন্সিলের জন্য ভেন্যুও উপযুক্ত নয় বলে দাবি তাদের।
 
এ ব্যাপারে বংশাল থানা বিএনপির সাবেক এক সহসভাপতি বলেন, আমরা আসলে এখানে কাউন্সিল করতেই চাইনি। আমরা চীনমৈত্রীতে (বঙ্গবন্ধু সম্মেলন কেন্দ্র) কাউন্সিল করতে চেয়েছিলাম বা আরো কোনো বড় জায়গায়। কিন্তু বাধ্য হয়ে এখানে আজ করতে হচ্ছে। আমরা জানি যে আজ ব্যাপক যানযট হবে। তবুও কিছু করার নেই আমাদের। এই সাময়িক ভোগান্তির জন্য শহরবাসীর ক্ষমা চাচ্ছি। এছাড়াও তারা অভিযোগ করছেন, পুলিশ একটু তৎপর হলেই এ যানজট এড়ানো যেত। সকাল থেকে এ সড়কগুলো বন্ধ করে বিকল্প সড়কে যাওয়ার ব্যবস্থা করা হতো তাহলে নেতা-কর্মীরা সুন্দরভাবে সমাবেশস্থলে আসতে পারতেন।
 
সকাল থেকেই রাজধানীর শাহবাগ গোলচত্বর থেকে ফার্মগেট ও শাহবাগ হয়ে জাতীয় প্রেসক্লাবমুখী সড়কের আশপাশের এলাকায় তীব্র যানজট সৃষ্টি হয়েছে। সমাবেশে অংশ নিতে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে বিএনপির নেতা-কর্মীরা গাড়িতে চেপে সকাল ৭টার দিকে মৎস্য ভবনের দিকে যেতে থাকেন। এ ছাড়া ঢাকার আশপাশ থেকেও দলের হাজারো  নেতা-কর্মী-সমর্থক সমাবেশে যোগ দেন। যানজটের কারণে তাদের বহন করে আনা বাস ও ট্রাকগুলো নির্ধারিত সময়ে কাউন্সিলস্থলে পৌঁছাতে পারেনি। মতিঝিল এলাকা থেকে কেউ কেউ পাবলিক বাসে চাপলেও দীর্ঘক্ষণ যানজটে আটকে থাকার পর গাড়ি থেকে নেমে হাঁটতে শুরু করেন।
সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন