সব দল অংশগ্রহণ না করলে নির্বাচন হবে না

সময়বাংলা, রাজনীতি: একাদশ সংসদ নির্বাচনে সব দল না এলে ভালো নির্বাচন হবে না বলে জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদা। গতকাল নির্বাচনবিষয়ক রিপোর্টিং প্রশিক্ষণের সমাপনী দিনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন তিনি। এ বছরের নভেম্বর থেকে আগামী বছরের জানুয়ারির মধ্যে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন হবে। তা অংশগ্রহণমূলক করার বিষয়ে জোর দিচ্ছে সব মহল। এ প্রসঙ্গ টেনে সিইসি বলেন, নির্বাচন

করাই আমাদের জন্য বড় চ্যালেঞ্জ। আমরা আশা করি, সব দলই আগামী নির্বাচনে অংশ নেবে। সব দল না এলে তা ভালো নির্বাচন হবে না। দশম সংসদ নির্বাচনে বিএনপি ও সমমনা দলগুলো অংশ নেয়নি। তবে একাদশ সংসদ নির্বাচনে তা হবে না বলে আশা রাখেন কে এম নূরুল হুদা। দশম সংসদ নির্বাচনের পুনরাবৃত্তি রোধ করতে ইসির কী ভূমিকা থাকবে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এটা দুঃখজনক হবে যদি আগের মতো হয়। সব দল নির্বাচনে না আসলে সে নির্বাচন ভালো নির্বাচন হয় না। সব দলের নির্বাচনে অংশগ্রহণ করাটা জরুরি। আমি এখনো আশা করি সব দল অংশ নেবে। তিনি জানান, নির্বাচন নিরপেক্ষভাবে করতে কমিশনের দৃঢ়তা রয়েছে। রাজনৈতিক দলগুলো কমিশনের নিরপেক্ষতা নিয়ে কথাবার্তা কম বলছে। এক প্রশ্নের জবাবে সিইসি বলেন, দলগুলো রাজনৈতিক ব্যাপারে তাদের যে ইস্যু আছে সেটা নিয়েই ভাবে। কী ধরনের সরকার হবে, তাদের মামলা-মোকদ্দমা কী হবে এসব নিয়ে ভাবে। অনাস্থার বিষয়টা আসে না। সেটা যদি আসে তবে আমরা তা চিহ্নিত করব।

এমপিদের আচরণবিধি : নির্বাচনের সময় সংসদ বহাল থাকলে আচরণবিধি সংশোধন করে এমপিদের ক্ষমতা খর্ব করা হবে কি না জানতে চাইলে কে এম নূরুল হুদা বলেন, এটা অবশ্যই চিন্তা করা দরকার। তাদেও রেখে নির্বাচন করতে হলে আচরণবিধিতে কিছু পরিবর্তন আনা দরকার। এটা নিয়ে আমরা চিন্তা করে দেখব। বিদ্যমান পরিস্থিতিতে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরির বিষয়ে সীমাবদ্ধতার কথা জানান সিইসি। তিনি বলেন, কিছু কিছু জিনিস আছে যেখানে নির্বাচন কমিশনের কিছু করার নেই।

সময়বাংলা/আইজু

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন