সম্মানিত সকল মুসলিম গণ সহ সকলে জেনে রাখুন: মৌলবাদ, জঙ্গি, মুসলিম এবং মিডিয়া

নিজস্ব প্রতিনিধি: হিটলার এক জন অমুসলিম, ৬০ লক্ষ ইহুদী হত্যা করেছিল সে, মিডিয়া একবারও তাকে বলেনি সে খ্রিষ্টান ট্রেরোরিস্ট।  জ.স্ট্যালিন এক জন অমুসলিম, সে ২০ মিলিয়ন মানুষ হত্যা করেছে এবং ১৪. ৫ মিলিয়ন মানুষ অসুস্থ হয়ে ধুকে ধুকে মারা গেছেন। মিডিয়া এক বার তাকে বলেনি সে খ্রিষ্টান ট্রেরোরিস্ট। মাওসেতুং এক জন অমুসলিম, ১৪ থেকে ২০ মিলিয়ন মানুষ হত্যা করেছিল, মিডিয়া এক বার তাকেও বলেনি সে বোদ্ধ ট্রেরোরিস্ট। মুসুলিনী ৪ লক্ষ মানুষ হত্যা করেছে,সে কি মুসলিম ছিল? অন্ধ মিডিয়া এক বারও বলেনি সে খ্রিষ্টান ট্রেরোরিস্ট।

অসোকা সে ১০০ লক্ষ মানুষ হত্যা করেছে, সে কি মুসলিম ছিল, অন্ধ মিডিয়া একবার বলেনি সে হিন্দু ট্রেরোরিস্ট। আর জর্জ বুশ সে ইরাকে আফগানিস্তানে প্রায় এক দসমিক ৫ মিলিয়ন মানুষ হত্যা করেছে। মিডিয়া তো বলেনি সে খ্রিষ্টান ট্রেরোরিস্ট। এখন ও মায়ানমারে প্রতিদিন মুসলিমদের লুটপাট উচ্ছেদ এবং হত্যা করছে তবু ও কোন মিডিয়া বলেনি বোদ্ধ ট্রেরোরিস্ট।

ইতিহাস সাক্ষী পৃথিবীর বুকে বড় বড় গন হত্যা করেছে নন মুসলিমরা,আর এরাই দিন রাত গণতন্ত্রের মালা জপে মুখে ফেনা তুলে, অথচ এদের দ্বারাই মানবতা লাঞ্ছিত।

বুদ্ধিজীবীদের কাছে প্রশ্ন।
যারা প্রথম এবং দ্বিতীয় বার বিশ্বযুদ্ধ শুরু করে ছিল তারা কি মুসলিম ছিল। যারা অস্ট্রেলিয়া আবিস্কারের পর নিজেদের অাদিপত্য বিস্তারের জন্য ২০ মিলিয়ন অস্ট্রেলিয়ান আদিবাসী হত্যা করেছিল তারা কি মুসলিম ছিল। যারা হিরুসিমা ও নাগাসাকিতে পারমাণবিক বোমা নিক্ষেপ করেছিল তারা কি মুসলিম ছিল। যারা আমেরিকা আবিষ্কারের পর নিজেদের প্রভাব বিস্তারের জন্য উত্তর আমেরিকাতে একশত এবং দক্ষিন আমেরিকাতে পঞ্চাশ মিলিয়ন রেডইন্ডিয়ানকে হত্যা করে ছিল তারা কি মুসলিম ছিল।

যারা ১৮০ মিলিয়ন আফ্রিকান কালো মানুষ কে ক্রীতদাস বানিয়ে আমেরিকা নিয়ে গিয়েছিল। যাদের ৮৮ ভাগ সমুদ্রে মারা গিয়েছিল এবং তাদের মৃত দেহ আটলান্টিক মহা সাগরে নিক্ষেপ করে ছিল। তারা কি মুসলিম ছিল। এসব মহা সন্ত্রাসী ও অমানবিক কার্য্যকলাপের সাথে মুসলিমগণ কখনো জড়িত ছিলনা।

যখন কোন অমুসলিম খারাপ কাজ করে নির্যাতন করে তখন এটাকে বলে অপরাধ। আর যখন একজন মুসলিম হাজার নির্যাতনের শিকার হয়ে এক বার প্রতিবাদ করে তখন এটাকে বলা হয় মৌলবাদ, জঙ্গীবাদ।

বুদ্ধিজিবিদের চিন্তা করা উচিত সন্ত্রাসের সংজ্ঞা মৌলবাদ জংগীবাদ সব কিছু ইতিহাস থেকে জেনে নিন।

সময়বাংলা/উপদেষ্টা/স/এডিট

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন