সিরিজ বাচাঁনোর ম্যাচে মিলার, ফ্লাসেন ও ফিলাকাওয়ে ভারতের হার।

জোহানেসবার্গে স্বাগতিক দক্ষিন আফ্রিকার সিরিজ বাঁচানোর ম্যাচে বৃষ্টি বাধায় খেলা থেমে যাবার পর ডাকওয়ার্থ লুইস মেথডে সফরকারী ভারতকে হারাল দক্ষিণ আফ্রিকা।

যেখানে প্রোটিয়াদের সিরিজ বাঁচাতে হলে ২৮ ওভারে দরকার ছিল ২০২ রান। সেই অসম্ভবকে সম্ভব করেছে প্রোটিয়া ব্যাটসম্যানরা। বৃষ্টিতে খেলা থামার আগে প্রোটিয়াদের সংগ্রহ ছিলো ৭.২ ওভারে ১ উইকেটে ৪৩ রান।

ছয় ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের প্রথম তিন ম্যাচে জিতে বেশ স্বস্তিতে ছিল সফরকারী ভারত। সেই স্বস্তি আর ছন্দে থেকে শনিবার স্বাগতিকদের বিপক্ষে চতুর্থ ওয়ানডেতে মাঠে নামে কোহলিরা। তাতে কি। দিনটি যে আগে থেকেই প্রোটিয়াদের জন্য লেখা হয়ে আছে।

এই একই মাঠে পিংক ডে’তে দক্ষিন আফ্রিকা অস্ট্রেলিয়ার ৪৩৪ রান তাড়া করে জয় পেয়েছিলো। সেটা তো ইতিহাস হয়ে থাকবে আরো কয়েককাল। গতকালও ইতিহাস কথা বলেছে আফ্রিকানদের হয়েই। তবে কাজটি সহজ ছিলনা।

ভারত আগের ৩ ম্যাচে জিতলেও বিস্ময় উপহার দেন প্রোটিয়া ব্যাটসম্যান ক্লাসেন ভিলিয়ারর্স ফিলাকাওরা। ৫০ ওভার ম্যাচে ৬ এর নিচে প্রতি ওভারে লক্ষ্যটা আরও সহজ হতে পারত বৃষ্টি বিঘ্নিত রিভাইজড টার্গেটে।

সেটা হয়নি নিজেদের ভুলেই। বৃষ্টির ঠিক আগের বলটিতে উইকেট দেয়ায় নতুন লক্ষ্য দাঁড়ায় ২৮ ওভারে ২০২। ৭.২ ওভার হয়ে যাওয়ায় আর থাকে না পাওযার প্লে সুবিধা। প্রয়োজনীয় রানরেট তখন প্রায় সাড়ে নয়! যেটা প্রায় অসম্ভব যেকোন দলের জন্য।

৮০ রানের মাধ্যে আমলা, ডুমিনি, মার্করাম, ভিলিয়ার্স আউট হয়ে ড্রেসিংরুমে ফেরত যাওয়ার পর যেটা শুধু কল্পনা।

যেখানে কিছু মিরাকেল দরকার ছিল। সেই কাজটিই করেন কিলার মিলার আর যোগ্য সঙ্গ দেন ক্লাসেন। মেতে উঠেন ছক্কার বন্যায়। ৫ ওভারে ৬৮ রান দিয়ে রান দেন চাহেল। যেখানে ইতিহাস গড়েছেন চাহেল ওয়ানডেতে ওভার প্রতি সবেচেয়ে বেশি রান দেয়ার নতুন রেকর্ড গড়েছেন।

ডেভিট মিলার ৩৯, ক্লাসেন ৪৭*, ফিলাকাও ৫ বলে ২৩*। আর ছোট ছোট কিছু কন্ট্রিবিউট করছেন এবিডি ভিলিয়ার্স। আউট হওয়ার আগে ভিলিয়ার্স করেন ১৯ বলে ২৬ আর আমলা করেন ৩৩ রান।

এর আগে জোহানেসবার্গে ভারতের পক্ষে নিজের শততম ম্যাচে শেখর ধাওয়ান ১০৯ রান, আর অধিনায়ক কোহলি’র ৭৫ রানে ভারত ২৮৯ রানের সংগ্রহ পায়।

জবাবে খেলতে নেমে ৪৩ রানের মাথায় অধিনায়ক মারকমকে হারিয়ে বসে স্বাগতিকরা। খুড়ে খুড়ে চলা রানকে কিলার মিলার ছয়ের বন্যায় ভাসিয়ে দলকে জয়ের বন্দরে নিয়ে যান।

অন্যদিকে এই ম্যাচের মাধ্যমে ভারতের ক্রিকেট ইতিহাসে প্রথম কোনো ব্যাটসম্যান হিসেবে শততম ওয়ানডেতে সেঞ্চুরি করার রেকর্ড গড়েছেন শিখর ধাওয়ান। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে চতুর্থ ওয়ানডেতে ৯৯ বলে সেঞ্চুরি তুলেন ধাওয়ান। ভারতের প্রথম হণমলেও ক্রিকেট ইতিহাসে নবম ব্যাটসম্যান ধাওয়ান।

এর আগে ২০১৭ সালে অস্ট্রেলিয়ার ডেভিড ওয়ার্নার ভারতের বিপক্ষে শততম ওয়ানডেতে সেঞ্চুরি করেছিলেন। ধাওয়ান ও ওয়ার্নারের আগে রামনারেশ সারোয়ান,কুমার সঙ্গাকারা, মার্কাস ট্রেসকোথিক, মোহাম্মদ ইউসুফ।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন