সৌদি অারবে দীর্ঘ এক বছর পর ওমরাহ ভিসা চালু

22216 mokkaকামাল পারভেজ অভি,সৌদি অারব ব্যুরো : প্রায় এক বছর পর আবার সৌদি অারবে পবিত্র ওমরাহ ভিসার দুয়ার খুলেছে বাংলাদেশিদের জন্য। গত শনিবার থেকেই শুরু হয়েছে ওমরাহ ভিসায় বাংলাদেশিদের সৌদি আরব গমন। ওমরাহ হজযাত্রী নিয়ে সৌদি অ্যারাবিয়ান এয়ারলাইন্সের একটি নিয়মিত ফ্লাইট এদিন ঢাকা ছাড়ে। এ বছর এ ভিসার আওতায় ৫৫ হাজার বাংলাদেশি সৌদি আরব যাবেন বলে জানা গেছে।
এর আগে গত বুধবার সৌদি আরবের হজ এজেন্সিগুলো বাংলাদেশিদের জন্য ’মুফা’ বা ছাড়পত্র প্রদান শুরু করে। বাংলাদেশি হজ এজেন্সিরা জেদ্দাস্থ তাদের চুক্তিভিত্তিক এজেন্সিগুলোর কাছে মুফা চেয়ে পাঠালে তারা চাহিদা-মাফিক মুফা ঢাকাস্থ সৌদি দূতাবাসে প্রেরণ করে।এরপর বাংলাদেশি এজেন্সিগুলো ভিসা প্রার্থীর পাসপোর্ট জমা দেন সৌদি দূতাবাসে। মুফা দেখে ভিসা ইস্যু করে সৌদি দূতাবাস।
হজ এজেন্সিস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (হাব) সভাপতি মোহাম্মদ ইব্রাহিম বাহার বলেন, আমার নেতৃত্বে হাব এর ৫ সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল ৮ ফেব্রুয়ারী সৌদি আরব যায়। সেখানে হজ চুক্তি হয়। এবং হজ এজেন্টদের সঙ্গে আলোচনা হয়। আলোচনার পর ’কান্ট্রি লগ’ খুলে দেয় সৌদি আরব।

তিনি বলেন,আদম পাচারের অভিযোগ থেকে মুক্ত হয়েছেন সৌদি আরবে আমাদের কাউন্টার পার্ট হজ এজেন্টরা। তারা সেদেশের হজ এ্ং স্বরাস্ট্রমন্ত্রণালয়ের সঙ্গে তাদের সমস্যা মিটিয়ে নিয়েছেন। ফলে বুধবার থেকে মুফা দেয়া শুরু করেছে। এবছর প্রায় ৫৫ হাজার বাংলাদেশি ওমরাহ করার ভিসা পাবেন বলে আশা করছি।
উল্লেখ্য, গত বছরের মার্চ থেকে বাংলাদেশিদের ওমরাহ ভিসা প্রদান বন্ধ রাখে সৌদি সরকার। গত তিন মাস আগে ওমরাহ মওসুম শুরু হলেও কাটছিলো না ভিসা জটিলতা। বিশ্বের অন্য দেশগুলোর জন্য ভিসা উন্মুক্ত করা হলেও বাংলাদেশিদের ওমরাহ ভিসা নিয়ে অনিশ্চয়তা দেখা দেয়। মুলত:ওমরাহ ভিসায় আদম পাচার এবং সৌদি আরব গিয়ে কয়েক হাজার বাংলাদেশির ফেরত না আসার কারণে সৌদি সরকার কালো তালিকাভুক্ত (ব্ল্যাকলিস্টে) করে বাংলাদেশকে। ভিসা প্রদান বন্ধ করে দেয়।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন