গোপনে পারমাণবিক শহর গড়ছে ভারত

সময় বাংলা ডেস্ক :

india- pic_108554ভারত অত্যন্ত গোপনীয়ভাবে পারমাণবিক শহর গড়ছে । দক্ষিণ এশিয়ার ‘সর্ববৃহৎ পরমাণু সমৃদ্ধ’ শহরটির নির্মাণ কাজ শেষ হবে ২০১৭ সালে । এক প্রতিবেদনে উল্লেখ করেছে যুক্তরাষ্ট্রের ফরেন পলিসি বিষয়ক একটি প্রখ্যাত ম্যাগাজিন।

খবর পিটিআইয়ের।

ফরেন পলিসি জার্নালে বলা হয়েছে, কর্নাটকের চল্লেকেরে এলাকায় শহরটি নির্মাণের কাজ চলছে। পাকিস্তান ও চীনের সক্ষমতার বিষয়টি মাথায় রেখে নিজেদের পারমাণবিক শক্তি আরও বাড়াতে প্রকল্পটি বাস্তবায়িত করছে ভারত।

ফরেন পলিসিকে ভারতীয় এক অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মকর্তা ও বিশেষজ্ঞ বলেন, এই প্রকল্পের ফলে ভারতে ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণের পরিমাণ আরও বারবে।

যা থেকে নতুন করে আরও হাইড্রোজেন বোমা তৈরি করা যাবে। এগুলো উচ্চ পর্যায়ের থার্মোনিউক্লিয়ার অস্ত্রে ব্যবহৃত হবে।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, শহরটিতে দক্ষিণ এশিয়ার সর্ববৃহৎ সেনাচালিত পরমাণু সেন্ট্রিফিউজ ভবন থাকবে। এ ছাড়া পরমাণু গবেষণাগার, অস্ত্র ও বিমান পরীক্ষা চলানোর সুবিধা থাকবে।

অনুসন্ধানী প্রতিবেদনটিতে ভারতের বেশ কয়েকজন অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মকর্তার বরাত ও বর্তমানে চাকরিরতদের সূত্রের উদ্ধৃতি দেয়া হয়েছে। তবে এ ব্যাপারে ভারত বা যুক্তরাষ্ট্র সরকারের কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

এর আগে যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে বলা হয়, তারা মাইসোরের প্রকল্পগুলোর দিকে নজর রাখছে এবং চল্লেকেরের অগ্রগতির দিকেও নজর রাখা হচ্ছে।

চল্লেকেরে মাইসোর থেকে ২৬০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত।

সম্প্রতি স্টকহোম ইন্টারন্যাশনাল পিস রিসার্চ ইনস্টিটিউট (এসআইপিআরআই) জানায়, ভারতের কাছে অন্তত ৯০ থেকে ১১০টি পারমাণবিক অস্ত্রের মজুদ রয়েছে।

অপরদিকে পাকিস্তানের ১২০ ও চীনের ২৬০টি পারমাণবিক অস্ত্র রয়েছে।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন