লেবানন বিএনপি’র শাখা কমিটির বিজয় দিবস উদযাপন

সময় বাংলা/লেবানন :

ain r bnpমহান বিজয় দিবস উদযাপন করেছে লেবানন বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির অন্তর্ভূক্ত আইন আল রুম্মানী শাখা কমিটি, আইন আল রুম্মানী ফেরেস স্কুলের মাঠে অনুষ্টিত হয় দিবসটি। মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে ডিসেম্বর মাস জুরে কর্মসূচী ঘোষনা করেছিলেন লেবানন কেন্দ্রীয় কমিটি, আর তারি কর্মসূচি অংশ হিসেবে শেষ কর্মসূচী পালন করলেন আইন আল রুম্মানী শাখা বিএনপি।

আইন আল রুম্মানী শাখার সভাপতি হামিদুল ইসলাম শ্রাবনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভার প্রধান অতিথি ছিলেন লেবানন বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি মো. মানিক মোল্লা।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, লেবানন বিএনপি’র প্রতিষ্ঠাতা আব্দুল গফুর, সাবেক সভাপতি বিল্লাল হোসেন বেপারী, প্রধান উপদেষ্টা শিপন মোল্লা, সাধারন সম্পাদক নজরুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক আবু বক্কর, যুবদলের  সাংগঠনিক সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আইমান।

প্রথমে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত এবং শহিদদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করা হয়। জিয়া পরিবারের জন্য বিশেষ দোয়া করা হয়।

পরে জাতীয় সংগীত এবং দলীয় সংগীত পরিবেশন করা হয়। জাতীয় সংগীত পরিবেশনের সময় উপস্থিত সকলে দাঁড়িয়ে জাতীয় পতাকাকে সম্মান প্রদর্শন করে। দলীয় সংগীত পরিবেশনের সময় সবাই হাতে তালি বাজাতে থাকে।ain r bnp 3

বক্তারা বলেন, আজকে যারা বাংলাদেশ এবং বাংলাদেশর জনগন নিয়ে ছিনিমিনি খেলছে এবং বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল ও দলের নেতৃবৃন্দদের উপর জুলুম অবিচার করছে, এই অবৈধ সরকারের বিচার একদিন বাংলাদেশ হবে। মিথ্যা মামলা দিতে দিতে সরকার বাংলাদেশকে কারাগার বানিয়েছে।

নেতৃবৃন্দ আরে বলেন, খেলনার পুতুলকে নির্বাচন কমিশন বানিয়ে এবার পৌর নির্বাচনও জোর করে জিতার চেষ্টা করছে। বিএনপি প্রাথীদের ভয়ভীতি প্রদর্শন করছে।বিভিন্ন নির্বাচনী প্রচারনায় বাধাঁ দিচ্ছে। আর ক্ষমতাসীনরা আইনের তুয়াক্কা না করে এমপি মন্ত্রিরা নির্বাবাচী প্রচারনা করে যাচ্ছে।

নেতৃবৃন্দ বৈরত দূতাবাসের উদ্দেশ্যে বলেন, দূতাবাসর কিছু কর্মকর্তা প্রবাসিদের সাথে খুব খারাপ ব্যবহার করছে,তাই মান্যবর রাষ্ট্রদূতকে এবিষয়ে পদক্ষেপ নেয়ার আহবান জানান।ain r bnp 2

সভায় উপস্থিত ছিলেন, লেবানন বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ন সাধারন সম্পাদক মজিবুল হক, দপ্তর দম্পাদক ওয়াসিম আকরাম, জাকির হোসেন, আমির হোসেন, মোস্তাফা কামাল সহ আরো অনেকে।

এছাড়া লেবাননে বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা বিএনপি’র সমর্থক বৃব্দ,১৬টি শাখা কমিটির নেতৃবৃন্দ, এবং যুবদলের নেতৃবৃন্দ।

সভা শেষে একটি প্রীতি ফুটবলের আয়োজন করেন।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন