সৌদির আরবে সোনার খনির সন্ধান : গুজব না সত্যি?

6216 gold-mine-in-saudiসময় বাংলা ডেস্ক : সৌদি আরবের তায়েফ শহরের একটি পাহাড়ে চকচকে খনিজ পাওয়া গেছে। দেশটির সামাজিক মাধ্যমে প্রথমে সোনা পাওয়া গেছে বলে খবর ছড়িয়ে পড়ে।
সৌদি ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা (এসজিএস) জানিয়েছে, তাদের একটি দল তায়েফের ওই পাহাড়ে গিয়ে নমুনা নিয়ে আসে গবেষণাগারে। এখানে পরীক্ষা করে দেখা যায় এসব খনিজ সোনা নয়।

এসজিএসের একজন মুখপাত্র বৃহস্পতিবার সংবাদমাধ্যমকে জানান, সাধারণ যেটিকে মানুষ সোনা ভেবেছিল সেটি আসলে পাইরাইট নামের খনিজ পদার্থ। হলুদ রঙের পদার্থটি আয়রন ডাইসালফাইড দিয়ে গঠিত। সাধারণের কাছে এটি বোকার সোনা হিসেবে পরিচিত। পাইরাইট ভূ-উদগীরণ থেকে নিঃসৃত পাথরের মধ্যে সাধারণত পাওয়া যায়, যা উচ্চ তাপমাত্রায় বিভিন্ন রাসায়নিক পরিবর্তনের মধ্য দিয়ে হয়।

সৌদি আরবের দৈনিক সৌদি গেজেটে বলা হয়, সোনার গুজব ছড়িয়ে পড়ার ব্যাপারে তায়েফের মানুষ মিশ্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে। অনেকে চুপচাপ থাকলেও বিভিন্ন মানুষ ঘটনাস্থলে চকচকে খনিজ পদার্থ ব্যাগভর্তি করে নিয়ে আসে। তাদের ধারণা ছিল, এখান থেকে তারা সোনা পাবে।

তায়েফের দক্ষিণ-পূর্বে সড়ক নির্মাণের কাজে নিয়োজিত শ্রমিকরা প্রথমে এ পদার্থের সন্ধান পান।
গুজব ছড়িয়ে পড়লে বিপুল মানুষ সেখানে যায়। তবে পুলিশ ব্যাপারটি নিয়ন্ত্রণে নিয়ে স্থানটি ঘিরে রেখেছে।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন