স্পেনের বাংলাদেশ দূতাবাসের নানা অনিয়মের বিরুদ্ধে বার্সেলোনায় প্রতিবাদ সভা

8216 speinসময় বাংলা ডেস্ক,স্পেন : আমাদের দেশের মাননীয় অর্থ মন্ত্রী এমন কি মাননীয় প্রধান মন্ত্রী প্রবাসীদের উদ্দেশ্যে মাঝে মাঝে বলেন আমরা প্রবাসীরা নাকি পদ্মা সেতুর অংশীদার। আমাদের রেমিটেন্স এর টাকায় নাকি পদ্মা সেতু হচ্ছে।আমরা প্রবাসীরা নাকি অর্থনীতির চালিকা শক্তি, অথচ আজ স্পেনে বসবাসরত প্রবাসীদের মাদ্রিদস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের নানা অনিয়মের হয়রানী ও ভুক্তবুগী শিকার হচেছ প্রতিদিন। তারই পরিপ্রক্ষিতে স্পেন প্রবাসী বাংলাদেশীদের দূতাবাস সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন কাজে সহায়তার পরিবর্তে নানাভাবে হয়রানীর অভিযোগ তুলে স্পেনের মাদ্রিদস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের নানা অনিয়মের প্রতিবাদে বার্সেলোনায় প্রতিবাদ সভা অনুষ্টিত হয়েছে।

গত ৭ জানুয়ারী বার্সেলোনার স্থানীয় একটি হলে বাংলাদেশী কমিউনিটির বেশ কয়েকটি সামাজিক সংগঠন এই প্রতিবাদ সভার আয়োজন করে। প্রতিবাদ সভায় ভূক্তভোগী প্রবাসীরা স্পেনের মাদ্রিদস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের কতিপয় কর্মকর্তা দ্বারা হয়রানি বিশেষ করে মেশিন রেডিবল পাসপোর্ট গ্রহণে পরিকল্পিতভাবে একটি দালাল চক্রের মাধ্যমে উৎকোচ প্রদানে বাধ্য করা‘র কথা উল্লেখ করে বলেন, ১৫০ ইউরো উৎকোচ প্রদান করে স্পেনের মাদ্রিদস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের নির্দ্দিষ্ট দালালদের মাধ্যমে দূতাবাসে গেলে মেশিন রেডিবল পাসপোর্ট পেতে কোনো সমস্যা হয়না। অন্যথায় কর্তৃপক্ষ নানা অজুহাতে পাসপোর্ট প্রদানে গড়িমসি করে থাকে।

দূর-দূরান্ত বিশেষ করে বার্সেলোনা থেকে পরিবার-পরিজন নিয়ে দূতাবাসে গিয়ে অনেকেই তীক্ত অভিজ্ঞতার সম্মুখীন হয়েছেন। সংশ্লিষ্ট কাগজপত্র সঙ্গে নিয়েও দালাল ছাড়া কোনো কাজ হয়না উল্লেখ করে বক্তারা বলেন,দূতাবাসের এপয়েন্টমেন্ট নিতে টেলিফোনে ঘন্টার পর ঘন্টা চেষ্টা করেও সংযোগ পাওয়া যায়না অথচ দূতাবাসের নির্দ্দিষ্ট দালালরা মুহুর্তেই তা করে দিতে পারে। বক্তারা স্পেনের মাদ্রিদস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের এহেন আচরণের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে যে সকল কর্মকর্তাদের কারণে দূতাবাসের মধ্যে দালাল চক্র সৃষ্টি করে প্রবাসীদের হয়রানী করা হচ্ছে তাদেরকে দ্রুত চিহ্নিত করে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য বাংলাদেশ সরকারের প্রতি অনুরোধ জানান। অন্যথায় এসব বিষয় স্পেনের মূলধারার মিডিয়া‘য় প্রকাশিত হলে বাংলাদেশের সুনাম ক্ষূন্ন হবার আশংকা থাকবে বলেও তারা আশংকা প্রকাশ করেন। প্রতিবাদ সভা থেকে অবিলম্বে এসব হয়রানী বন্ধ না হলে কমিউনিটির মানুষেরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে স্পেনের বাংলাদেশ দূতাবাস ঘেরাওয়ের কর্মসূচি দিতে বাধ্য হবে বলেও হুশিয়ারী প্রদান করা হয়।

সুনামগঞ্জ কোলতোরাল এসোসিয়েশন এন কাতালোনিয়ার সভাপতি মনোয়ার পাশার সভাপতিত্বে ও ছাতক-দোয়ারা ফাউন্ডেশনের সভাপতি মোঃ এখলাছ মিয়ার পরিচালনায় অনুষ্ঠিত এই প্রতিবাদ সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কুলাউড়া ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশনের সভাপতি নজরুল ইসলাম,উসমানী নগর বালাগঞ্জ বিশ্বনাথ কোলতোরাল এসোসিয়েশনের সাধারন সম্পাদক শফিউল আলম,বাংলাদেশ কোলরোরালএসোসিশনের যুগ্ম সম্পাদক শাব্বির আহমেদ দুলাল,কমিউনিটি নেতা আজমান আলী,মোঃ আব্দুল মোমিন,আব্দুল আহাদ,আব্দুল কাদির,আনা মিয়া,কাওসার হাসান,এম লায়েবুর রহমান,মনোয়ার আহমেদ, মোঃ আব্দুল মনির,নূরুল ইসলাম,কামাল মিয়া,শফিউল আলম,মোঃ শাহীন মিয়া,সাহেন তালুকদার,মোঃ আমিনুল ইসলাম,মোঃ রুবেল মিয়া,মোঃ আব্দুল জাহাঙ্গীর,মোঃ মোশারফ হোসেন, রুসন আলী,আলাউর রহমান,একরাম আলী,জাকারিয়া আহমদ,আব্দুল মতলিব, ইছাক আলী, জুনাব আলী,মোঃ মুক্তাদির রহমান, মোঃ চিনু মিয়া, আব্দুস শহীদ,আব্দুল মুমিন,দেলোয়ারী হোসেন,আব্দুল রকিব স্বপন, রাজা রহমান,আরাফাত হোসেন, আলকাছ উদ্দিন,আতাউর রহমান,ফয়জুর রহমান,তুতিউর রহমান,একলাছ মিয়া প্রমূখ। 

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন