আওয়ামী লীগের ভোট হঠাৎ কমে অর্ধেক !

বর্তমান সরকারের অধীনে নিরপেক্ষ নির্বাচন হবে না !!

9216 votসময় বাংলা ডেস্ক, ঢাকা: এই মুহূর্তে নির্বাচন হলে ২৮.২৬ শতাংশ ভোটার ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগকে আর ২৩.০৭ শতাংশ ভোটার বিএনপিকে ভোট দেবেন বলে এক জরিপে দাবি করা হয়েছে।  
 
সারাদেশের ৪৯৫০ জন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের ওপর চালানো জরিপে এই ফল পাওয়া গেছে বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে আওয়ামী লীগ সমর্থক অনলাইন সংবাদপত্র বাংলা ট্রিবিউন। 
 
প্রতিবেদনে বলা হয়, জরিপ অংশগ্রহণকারীদের ২৮.২৬ শতাংশ আওয়ামী লীগকেই ভোট দেবেন বলে জানিয়েছেন। অন্যদিকে ২৩.০৭ শতাংশ জানিয়েছে তারা ভোট দেবেন বিএনপিকে। আবার নির্বাচন হলে আওয়ামী লীগ জিতবে বলেও মনে করেন ৩৮.৮৭ শতাংশ এবং বিএনপি জিতবে বলে মনে করেন ৩০.০৮ শতাংশ। ৪১.৫৮ শতাংশ মানুষ কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।
 
তবে লক্ষ্যণীয় বিষয় হলো, ৬০.০৮ শতাংশ মনে করেন বর্তমান সরকারের অধীনে নিরপেক্ষ নির্বাচন হবে না।
 
১৭ জানুয়ারি-২৫ জানুয়ারি জরিপটি পরিচালনা করা হয় বলে জানায় বাংলা ট্রিবিউন।
 
তবে জরিপের এই ফল নিয়ে প্রশ্ন উঠতে পারে এই কারণে যে গত ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রদত্ত মোট ভোটের ৫২ শতাংশের বেশি পেয়েছে। মাত্র তিন সপ্তাহের ব্যবধানে সরকারি দলের ভোট অর্ধেকে নেমে আসাটা অবিশ্বাস্য ব্যাপার। যদিও বিএনপি নেতারাসহ অনেকেই ওই নির্বাচনে ব্যাপক কারচুপির অভিযোগ করেছেন। তবে সরকারি দলের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়, পৌরসভা নির্বাচন ছিল বাংলাদেশের ইতিহাসে সবচেয়ে সুন্দর স্থানীয় নির্বাচন। 
 
এই মুহূর্তে নির্বাচন হলে জিতবে আওয়ামী লীগ
এই মুহূর্তে নির্বাচন হলে কোন দল জয়ী হবে এমন প্রশ্নের উত্তরে আওয়ামী লীগ জিতবে বলে মনে করেন ৩৮.৮৭ শতাংশ এবং ৩০.০৮ শতাংশ মানুষ মনে করেন জিতবে বিএনপি। এক্ষেত্রেও মন্তব্য করতে রাজি হননি ২৬.৭১ শতাংশ। 
 
এমনকি বিভাগীয় শহরগুলোতেও (ময়মনসিংহ বিভাগীয় শহর বাদে) এগিয়ে আছে আওয়ামী লীগ। জরিপে দেখা যায়, এই মুহূর্তে নির্বাচন হলে আওয়ামী লীগ জিতবে বলে মনে করছেন ৩৭.৪৩ শতাংশ মানুষ। অন্যদিকে বিএনপি জিতবে বলে মনে করছেন ২৯.১০ শতাংশ মানুষ। জাতীয় পার্টি জিতবে বলে মনে করছেন ২.৩৮ শতাংশ মানুষ। 
 
বর্তমান সরকারের অধীনে নির্বাচনে আস্থা নেই
জরিপে অংশগ্রহণকারীদের ৬০.০৮ শতাংশ মনে করেন বর্তমান সরকারের অধীনে নিরপেক্ষ নির্বাচন হবে না। অন্যদিকে ৩৮.৫৫ শতাংশের মত বর্তমান সরকারের অধীনেই নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।
 
উল্লেখ্য প্রতিটি জেলায় ৫০ জন এবং বিভাগীয় শহরগুলোতে (ময়মনসিংহ বিভাগীয় শহর বাদে) ৩০০ জনের ওপর এই জরিপ চালানো হয়।  সারাদেশে মোট ৪৯৫০ জনের ওপর এই জরিপ পরিচালনা করা হয়।
সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন