সাবেক প্রধান বিচারপতি বললেন: বিচারপতি শামসুদ্দিন প্রমাণিত ‘স্যাডিস্ট’

9216 8876ঢাকা : “বিচার বিভাগের ইতিহাসে নজিরবিহীন বিতর্কের জন্ম দেয়া অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি এএইচএম শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক নিজেকে ‘স্যাডিস্ট’ প্রমাণ করেছেন। এক সময় সংসদ সদস্যরা তাকে এই অভিধা দিয়েছিলেন এখন তিনি সেটা প্রমাণ করলেন।”

আপিল বিভাগের অবসরপ্রাপ্ত এই বিচারপতি সম্পর্কে এমন মন্তব্য করেছেন সাবেক প্রধান বিচারপতি মাহমুদুল আমিন চৌধুরী।

মঙ্গলবার বিকেলে সুপ্রিমকোর্ট বার মিলনায়তনে বাংলাদেশ গণতান্ত্রিক আইনজীবী সমিতি আয়োজিত “বিচার বিভাগের স্বাধীনতা ও বিরাজমান পরিস্থিতি” শীর্ষক এক আলোচনা সভায় তিনি এমন কথা বলেন।

বিচারপতি আমিন চৌধুরী বলেন, ‘এর আগে জাতীয় সংসদে উনাকে নিয়ে সংসদ সদস্যরা ‘স্যাডিস্ট’ বলেছিলেন। সেটি তিনি প্রমাণ করেছেন।’

সরকারের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘আপনারা তাকে স্যাডিস্ট বললেন, আবার আপনারাই তাকে আপিল বিভাগে নিলেন কেন? জুডিশিয়ারিকে বাঁচাতে হবে। জুডিশিয়ারি নিয়ে মানিক যে সব ব্ক্তব্য দিচ্ছেন তাতে বিচার বিভাগ ধ্বংস হচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘আমার কাছে একজন উকিল নালিশ করেছিল যে একজন জজ সাহেব ১৫ মাস ধরে রায় লিখে দিচ্ছেন না। আমি শুনেছি এক থেকে দেড়শ জাজ সাহেবের কাছে অনেক রায় লেখা বাদ আছে। কিন্তু কেন, এতো সময় লাগে কেন? আমাদের সময় তো রায় লিখতে এতো সময় লাগতো না।’

“আমি প্রধান বিচারপতি থাকা অবস্থায় বিচারপতি মানিক হাইকোর্টে আসেন, একবছর ঠান্ডা ছিলেন। কিন্তু তার পর থেকেই তিনি আর ঠান্ডা নেই।”

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন