ঝিগাতলায় জাপান-বাংলাদেশ হাসপাতালে মৃত শিশুকে ভর্তি রেখে অর্থ আদায়: আটক ৬

10216 hotpitalবিশেষ প্রতিনিধি, ঢাকা: মৃত শিশুকে জীবিত বলে ভর্তি রেখে পরিবারের কাছ থেকে অর্থ আদায় করার অভিযোগে ৬ জনকে আটক করেছে র‌্যাব।

রাজধানীর ঝিগাতলা এলাকায় জাপান বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশিপ মেডিকেল সার্ভিসেস হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে এই গুরুতর অভিযোগ পাওয়া গেছে।

আজ বুধবার র‌্যাবের একটি ভ্রাম্যমাণ আদালত ওই হাসপাতালে অভিযান চালিয়ে ১১ লাখ ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে। র‌্যাব-২ এর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ হেলাল উদ্দিন এর নেতৃত্বে এ অভিযান চালানো হয়।

তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘গত মঙ্গলবার ১ বছর ৪ মাসের একটি শিশু হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়। কিন্তু শিশুটিকে জীবিত দেখিয়ে ভর্তি রেখে পরিবারের কাছ থেকে মোটা অংকের অর্থ নিচ্ছিল হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।’

এধরণের অভিযোগের ভিত্তিতে হাসপাতালে অভিযান চালানো হয়। আর ‘অভিযান চালানোর সময় দেখা যায়, বাচ্চাটি গত মঙ্গলবার থেকেই ক্লিনিক্যালি ডেড। তাদের ফাইল পত্রেও বাচ্চাটি মৃত বলে উল্লেখ থাকলেও পরিবারকে বাচ্চাটি জীবিত বলে জানানো হয়।’

র‌্যাব কর্মকর্তা জানান, ‘অভিযান চালানোর সময় অনভিজ্ঞ ডাক্তার দিয়ে শিশু রোগের চিকিৎসা করা, মেডিকেল বোর্ড গঠনের কোন ব্যবস্থা না থাকা, বায়োকেমিস্ট না থাকা, মেডিকেল টেকনোলজিস্টের কোন সার্টিফিকেট না থাকা, পর্যাপ্ত ডাক্তার ও নার্স না থাকাসহ বিভিন্ন অনিয়ম দেখা যায়।’

হাসপাতালটির সেবা মূল্য তালিকা প্রদর্শিত না থাকা, রোগ পরীক্ষার জন্য অত্যন্ত নিন্মমানের উপাদান ব্যবহার করা, ১২ ধরনের এন্টিবায়োটিকসহ অন্যান্য অনুমোদিত ওষুধ বিক্রয় করছিলো হাসপাতালটি বলে জানান তিনি।

এ সকল অভিযোগে জাপান বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশিপ মেডিকেল সার্ভিসেসের ৬জনকে আটক করে ভ্রাম্যমান আদালত। আটকদের জিজ্ঞাসাবাদে দোষ স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে মোট ১১ লাখ ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। আর এই জরিমানার টাকা অনাদায়ে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড প্রদান করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনার সময় উপস্থিত ছিলেন, র‌্যাব-২ এর উপ-পরিচালক ড. মো. দিদারুল আলম এবং উপ-পরিচালক মেজর মো. আতাউর রহমান, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক ড. মো. শাহজাহান এবং ড্রাগ অধিদপ্তরের ড্রাগ সুপার অজিউল্লাহ।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন