বৈরুত দূতাবাস পালন করবে ২১শে ফেব্রুয়ারী : স্থাপন করা হবে অস্থায়ী শহীদ মিনার

10216 embasidorসময় বাংলা, লেবানন: লেবানন বৈরুতের দূতাবাসে এই প্রথম মহান আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস একুশে ফেবরুয়ারী উপলক্ষে ,৫১’র ভাষা আন্দোলনের  শহীদদের প্রতি পুষ্পস্তবক অর্পনের জন্য অস্থায়ী শহীদ মিনার করার ঘোষনা দিলেন রাষ্ট্রদূত আব্দুল মোতালেব সরকার। বুধবার সাংবাদিকদের সাথে এক সৌজন্য সাক্ষাতে এমনটি জানান তিনি।
লেবাননে দূতাবাস স্থাপন হবার পর থেকে দূতাবাসের দায়িত্ব নিয়ে প্রথম এসেছিলেন সাবেক রাষ্ট্রদূত গাউছুল আযম সরকার, তিনি চলে যাবার পর ভারপ্রাপ্ত রাষ্ট্রদূতের দায়িত্বে ছিলেন নজরুল ইসলাম, কিন্তু কারো সময় এভাবে একুশে ফেবরুয়ারী পালন হয়নি। কিন্তু বর্তমান রাষ্ট্রদূত আব্দুল মোতালেব সরকারের সু-চিন্তায় এই প্রথম লেবাননের দূতাবাসের উদ্দ্যোগে অস্থায়ী ভাবে শহীদ মিনার স্থাপন করতে যাচ্ছে।লেবানন প্রবাসিদের দীর্ঘ দিনের দাবি খোলা আকাশে শহীদ মিনারে শহীদদের স্বরনে পুষ্পস্তবক অর্পন করবেন। আর এমনটি ভেবেই রাষ্ট্রদূত এমন চিন্তাটি করেছেন। আগামী একুশে ফেব্রুয়ারী রবিবার দূতাবাস ভবনের ছাঁদের উপর অস্থায়ী শহীদ মিনারে সকাল ৭টা ১মিনিটে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিতকরন এবং তারপর ৭টা ৫মিনিটে শুরু হবে পুষ্পস্তবক। এই দিনটি লেবাননের সরকারী সাপ্তাহিক ছুটি থাকায় প্রবাসিদের উপস্থিতি আশানুপাত হবে বলে আশা প্রকাশ করেন রাষ্ট্রদূত।রররর

আয়োজনের মধ্যে আরো রয়েছে, সে দিন সকাল ১০টা ৩০মিনিটে ভাষা শহীদদের স্বরণে আলোচনা সভা।

আলোচনা সভায় অংশ নিবেন, লেবানিস বিশিষ্ট্য মেহমানবৃন্দ, লেবাননের প্রবাসি কমিউনিটির নেতৃবৃন্দ এবং লেবানিস এবং বাংলাদেশি বিভিন্ন মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ।

রাষ্ট্রদূত লেবাননের সকল প্রবাসিদের উপস্থিত হয়ে ভাষা শহীদদের সম্মান জানাতে এবং তাদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করার আহবান জানান।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন