সাগড়-রুনি হত্যাকাণ্ড ‘আমি ৪৮ ঘন্টার নির্দেশ দিয়েছিলাম- প্রতিশ্রুতি দিই নি’ : সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

12216 sahara Katunসময় বাংলা ডেস্ক: ঠিক চার বছর আগে ঢাকায় নিজেদের বাসায় নৃশংসভাবে খুন হয়েছিলেন সাংবাদিক দম্পতি সাগর সরওয়ার এবং মেহেরুন রুনি।

সেসময় গণমাধ্যমে ব্যাপকভাবে আলোচিত এই হত্যাকান্ডের পর ৪৮ ঘন্টার মধ্যে হত্যাকারীদের ধরার নির্দেশ দিয়েছিলেন তৎকালীন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাহারা খাতুন।

কিন্তু ৪৮ ঘন্টা পার হয়ে ৪৮ মাস পরেও সাগর-রুনি হত্যার কোন সুরাহা এখনও হয়নি, ধরা পড়েনি হত্যাকারী।

ওই হত্যাকান্ডের পর আরও যে দুবছর তিনি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীর দায়িত্বে ছিলেন, সেই সময়ের মধ্যেও কেন এই হত্যাকান্ডের সুরাহা করা যায়নি এ প্রশ্নের উত্তরে তৎকালীন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাহারা খাতুন বিবিসি বাংলাকে বলেছেন তিনি এই কথাটা ঠিক ওইভাবে বলেন নি।

‘‘আমি আমার আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে আদেশ দিয়েছিলাম যে ৪৮ ঘন্টার মধ্যে এটা ধরতে হবে। আমি এই কথাটা বলেছিলাম- কিন্তু দু:খজনক হলেও আমার এই কথাটা ‘টুইস্ট’ করে আমার সাংবাদিক ভাইরা – বিভিন্নভাবে এটাকে টুইস্ট করা হয়েছে।’’

‘‘আমার মুখের যে বক্তব্যটা সেটার তো রেকর্ড আছে।’’

কিন্তু ওই হত্যাকান্ডের পর আরও যে দুবছর তিনি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীর দায়িত্বে ছিলেন, সেই সময়ের মধ্যেও কেন এই হত্যাকান্ডের সুরাহা করা যায়নি – কেন হত্যাকারীদের ধরা যায় নি – এ প্রশ্নের উত্তরে সাহারা খাতুন বলেন সবক্ষেত্রেই যে অপরাধীদের সাথে সাথে ধরা যায়, তা নয়।

‘‘যখন আইনশৃঙ্খলা বাহিনী এটা এনকোয়েরি ক’রে- ক্লু পাওয়ার জন্য চেষ্টা করে – তখন কিছু কিছু মামলায় দেখা যায় তারা ক্লুটা পাচ্ছে না। সেই আসামীকে সঠিকভাবে ধরতেও পারছে না।’’

২০১২ সালের ১১ই ফেব্রুয়ারি ঢাকায় নিজেদের বাসায় খুন হন সাংবাদিক দম্পতি সাগর সরওয়ার ও মেহেরুন রুনি।
২০১২ সালের ১১ই ফেব্রুয়ারি ঢাকায় নিজেদের বাসায় খুন হন সাংবাদিক দম্পতি সাগর সরওয়ার ও মেহেরুন রুনি।

তিনি বলেন সাগর-রুনি হত্যার ক্ষেত্রেও এমনটাই ঘটেছে, যার ফলে দেশের আইনশৃঙ্খলা বাহিনী এখনও পর্যন্ত আসামীকে ধরার জন্য সঠিক কোনো সূত্র বের করতে পারছে না ।

তিনি বলেন সরকারের আন্তরিকতা ও চেষ্টার কোনো অভাব নেই। পুলিশ কোনো ক্লু পায় নি বা কাউকে এখনও ধরতে পারে নি তার মানে এই নয় যে পুলিশ চেষ্টা করছে না।

সাহারা খাতুন বলেন বর্তমান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীও পুলিশকে ‘‘অবশ্যই বারবার তাগাদা দিচ্ছেন’’ এবং মাসে মাসে তিনি এ ব্যাপারে মিটিংও করছেন।

সাহারা খাতুন যখন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ছিলেন তখন এই মামলার অগ্রগতি নিয়ে তদন্ত কর্মকর্তাদের সঙ্গে তার যেসব কথাবার্তা হয়েছে সে প্রসঙ্গে সাবেক মন্ত্রী বলেন কিছু কিছু ব্যাপার থাকে যেগুলো সবার সামনে বলা যায় না।

‘‘কথাটা বুঝছেন? অনেক কিছু থাকে যেটাতে গোপনীয়তা রক্ষা করতে হয়। কাজেই তারা কী বলেছে সেই কথাটা তো আমি আপনাদের ওপেনলি বলে দিতে পারি না। আই অ্যাম সরি।’’

বাংলাদেশে অনেক মামলা, অনেক পুলিশি তদন্ত প্রভাবশালীদের কারণে বিঘ্নিত হয় এমন অভিযোগ তিনি জোরের সঙ্গে নাকচ করে দেন।

এই মামলার ক্ষেত্রে তার আমলে কোনো প্রভাব খাটানোর চেষ্টা হয়েছে কীনা এ প্রশ্নের উত্তরে সাহারা খাতুন বলেন ‘‘যতই প্রভাব খাটানো হোক্- আমি বলতে পারি অন্তত আমাদের সরকার কোনো প্রভাবে প্রভাবিত হয়ে কোনো কাজ করে না।’’

‘‘এই তদন্তের ক্ষেত্রে তেমন কিছু হয়েছে বলে আমি বিশ্বাস করি না। অন্তত আমার সময়ে আমি তো তাদের বলেছি যে কেউ হোক্- হু মে বি- বের করতেই হবে।’’- সূত্র : বিবিসি

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন