বাংলাদেশি শ্রমিকদের থাকার ব্যবস্থা করতে হবে

16216 khaled_nordinসময় বাংলা ডেস্ক :  নতুন শ্রমিকদের জন্য আবাসস্থল তৈরির প্রয়োজনীয়তার কথা বলছেন জোহর বারুর মন্ত্রী বাসার মোহাম্মদ খালেদ নরদিন।
তিনি বলেন, যদি কোনো সামাজিক এবং অর্থনৈতিক সমস্যা সৃষ্টি না হয় তবে ১৫ লাখ বাংলাদেশি শ্রমিক আনার কেন্দ্রীয় সরকারের সিদ্ধান্তের বিরোধীতা করছে না জোহর বারু।

শনিবার কামপুং সুংগাই রিনটিংয়ে পাসির গুদাং বাইসাইকেল ক্লাবের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।

মোহাম্মদ খালেদ নরদিন বলেন, স্থানীয়দের একটি অংশ অনেক বেশি বৈধ-অবৈধ শ্রমিক দেশে থাকায় অ-স্বস্তি প্রকাশ করছেন।

তিনি বলেন, পাসির গুদাং হচ্ছে বড় সংখ্যক বিদেশি শ্রমিকের বিশৃঙ্খলতার বড় উদাহরণ। যেই জেলায় একশরও ওপরে ম্যানুফেকচারিং কারখানা রয়েছে। তারা সেখানে সামাজিক সমস্যা সৃষ্টি করছে। এছাড়াও আমরা সিঙ্গাপুর থেকেও শিক্ষা নিতে পারি এবং একটি বড় সমস্যা তৈরির আগেই নিয়ন্ত্রণ করতে পারি।
তিনি আরও বলেন, মালিক এবং শ্রমিকদের প্রয়োজনীয় নীতিমালা তৈরি করতে হবে। বিদেশি শ্রমিকদের প্রয়োজনীয় বাসস্থান তৈরি করতে হবে এবং সর্বনিম্ন যোগ্যতা থাকতেই হবে।

খালেদ বলেন, স্থানীয়দের কারখানায় কাজ পেতে হয়ে অন্তত এসপিএম পাস করতে হয়। বিদেশি শ্রমিকদের নিয়োগের আগেও এ ধরনের সমমানের যোগ্যতার মান পরীক্ষা প্রয়োজন।

মালিকদেরই বিদেশি শ্রমিকদের জন্যে হোস্টেল বা ডরমিটরি ব্যবস্থা করতে হবে। তাদের জন্য ১০ বা ২০জন মিলে বাসা ভাড়া করে থাকার চেয়ে এটা ভাল।

খালেদ বলেন, যেসব মালিকরা এধরনের শর্ত পূরণ করতে ব্যর্থ হবে, তাদের বিদেশি শ্রমিক আনার অনুমতি দেওয়া উচিৎ হবে না।

তিনি বলেন, পাসির গুদাংয়ে বিদেশি শ্রমিকরা যে ধরনের সংঘর্ষে জড়াচ্ছেন, এখনই নিয়ন্ত্রণ করা না গেলে সেটি সিঙ্গাপুরের লিটল ইন্ডিয়ার মতো ঘটনাও ঘটে যেতে পারে।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন