৬০ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুতের মহাপরিকল্পনা নিয়ে এগোচ্ছে সরকার

shekh hasinaসময় বাংলা, ঢাকা : ঢাকা-চট্টগ্রাম রেলপথের টঙ্গী-ভৈরব অংশে ডাবল লাইন, ঢাকা-কুয়াকাটা সড়কে শেখ জামাল ও শেখ কামাল সেতু, গোপালগঞ্জের ৯০ গ্রামের ৬ হাজার পরিবারের বিদ্যুৎ সংযোগ, চার বিদ্যুৎকেন্দ্রসহ সারাদেশে ৫১টি উন্নয়ন প্রকল্প উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি জানিয়েছেন, ২০৪১ সালের মধ্যে ৬০ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুতের মহাপরিকল্পনা নিয়ে এগোচ্ছে সরকার।

বৃহস্পতিবার গণভবনে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এসব উন্নয়ন প্রকল্প উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘সংসদ সদস্যরা নিজ নিজ এলাকায় গিয়ে জনগণের উন্নয়নে কাজ করেন। সরকার প্রধানের দায়িত্বে থাকায় আমাকে পুরো দেশের তিনশত নির্বাচনী এলাকার কাজ দেখতে হয়।’

নিজের সংসদীয় এলাকার মানুষ এ কাজে সহযোগিতা করছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বাবা-মা হারিয়ে আমি তাদেরকে পেয়েছি।’

তিনি বলেন, ২০৪১ সালের মধ্যে ৬০ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনের মহাপরিকল্পনা নিয়েছে সরকার। বিশ্বের বুকে উন্নত, সমৃদ্ধ একটি জাতি হিসেবে বাংলাদেশকে প্রতিষ্ঠিত করতে সরকারের পক্ষ থেকে বিভিন্ন পরিকল্পনা ও উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

শেখ হাসিনা বলেন, মহাপরিকল্পনার অংশ হিসেবে এরই মধ্যে ১৪,৫০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদিত হচ্ছে। ২০১৮ সালের মধ্যে তা ১৬ হাজার মেগাওয়াটে উন্নীত করা হবে। ২০২১ সালে ২৪ হাজার মেগাওয়াট, ২০৩১ সালের মধ্যে ৪০ হাজার মেগাওয়াট ও ২০৪১ সালে ৬০ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে সরকার এগোচ্ছে।

উন্নয়নের এ মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন প্রধানমন্ত্রী।

চট্টগ্রামের পটিয়ার ১০৮ মেগাওয়াট ইসিপিভি চট্টগ্রাম লিমিটেড, কুমিল্লার জাঙ্গালিয়ার ৫২ দশমিক ২ মেগাওয়াট লাকধানাভি বাংলা পাওয়ার লি., গাজীপুরের কড্ডার ১৫০ মেগাওয়াট বিপিডিবি-আরপিসিএল পাওয়ারজেন লি. এবং ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে ২২৫ মেগাওয়াট সিসিপিপি (এসটি ইউনিট) বিদ্যুৎকেন্দ্রের উদ্বোধন করেন তিনি।

পটুয়াখালী জেলায় পটুয়াখালী-কুয়াকাটা মহাসড়কে নবনির্মিত শেখ কামাল সেতু ও শেখ জামাল সেতু,  সিলেট সড়ক জোনে ইস্টার্ন বাংলাদেশ ব্রিজ ইমপ্রুভমেন্ট প্রজেক্টের (ইবিবিআইপি) আওতায় নবনির্মিত ১৬টি সেতু, আধুনিক সিগনালিং ব্যবস্থাসহ টঙ্গী-ভৈরববাজার ডাবল লাইন রেললাইন, নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের বিভিন্ন স্থাপনার ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন ও উদ্বোধন, নারায়ণগঞ্জের সোনাকান্দায় পানি শোধনাগারেরও উদ্বোধন করেন শেখ হাসিনা।

এছাড়াও জয়পুরহাট জেলার বিভিন্ন স্থাপনার ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন ও উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন