ময়ূরী আর ফিরবেন না

সময় বাংলা, বিনোদন: একসময় ঢাকাই ছবির পর্দা কাঁপিয়েছেন ময়ূরী। শরীরী আবেদন ছড়িয়ে দর্শকমনে জায়গা করে নিয়েছেন আলাদাভাবে। কাজ করেছেন অনেক জনপ্রিয় নায়কের সঙ্গে। তবে ময়ূরীকে অশ্লীল ছবির নায়িকা হিসেবেই অভিযুক্ত করা হয় এই ইন্ডাস্ট্রিতে।

ঢালিউড থেকে অশ্লীল সিনেমা নির্মাণ বন্ধ হয়েছে অনেক আগেই। ফলে আর দেখা যায়নি ময়ূরীকে। কয়েক বছর আগে ‘ডার্টি পিকচার’-এর মতো করে একটি ছবি বানাবেন বলে ঘোষণা দিলেও তাকে পাওয়া যায়নি। সেই কাজটিও তিনি আর করছেন না। অর্থাৎ সিনেমা অঙ্গনে আর ফিরবেন না ময়ূরী।

১৯৯৮ সালে ‘মৃত্যুর মুখে’ ছবির মাধ্যমে রূপালি জগতে আত্মপ্রকাশ করেন ময়ূরী। তবে অন্যরকম তথ্যও জানা যায়। চলচ্চিত্রের জুনিয়র শিল্পী সেতুর মেয়ে ময়ূরী। তাকে চলচ্চিত্রে নিয়ে আসেন মাহমুদ নামে একজন প্রযোজক। ছবির পরিচালক ছিলেন কবি আবুল হাসানের ছোট ভাই প্রয়াত আবিদ হাসান বাদল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত ছবিটি নির্মিত হলেও ময়ূরী ছবিটিতে ছিলেন না। তিনি ক্যারিয়ার শুরু করেন ‘রাজা’ নামের একটি ছবি দিয়ে।

এরপর ময়ূরী নিজের ক্যারিয়ার চাঙ্গা রাখার জন্য এমন এক ঘরানার প্রযোজকদের ছবিতে জড়িত হতে থাকেন যারা কখনও ভালো ছবি নির্মাণ করেন না। কেবল শরীর স্বর্বস্ব ছবিতেই সীমাবদ্ধ হয়ে যান ময়ূরী। ক্যারিয়ারে ময়ূরী ৩০০র অধিক ছবিতে অভিনয় করেছেন। যার অধিকাংশই ছিলো অশ্লীল।

বর্তমানে ময়ূরী মগবাজার এলাকায় একটি ফ্ল্যাটে থাকেন। তার দুটি সন্তান রয়েছে। ময়ূরীর স্বামী রেজাউল করিম খান মিলন মারা যান ২০১৫ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর। মিলন টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ছিলেন।

সময়বাংলা/আইসা

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন